বুধবার , ২৮ জুলাই ২০২১


বোলিংয়ে বাংলাদেশের হতাশার সেশন




ফটো নিউজ ২৪ : 08/07/2021


-->

তাসকিনের আহমেদের বল ব্রেন্ডন টেইলরের ব্যাটের কানায় লেগে স্লিপের পাশ দিয়ে গেল বাউন্ডারিতে। অল্পের জন্য হলো না ক্যাচ। দিনের সেটি শেষ ওভার। কিন্তু আগের ৪০ ওভারে ওরকম মুহূর্ত এলো কমই। সুযোগ সৃষ্টি করা কিংবা জিম্বাবুয়ের ব্যাটসম্যানদের সেভাবে বিপাকেই ফেলতে পারল না বাংলাদেশের বোলাররা। লম্বা সেশনে প্রাপ্তি মোটে একটি উইকেট।

ব্যাটিংয়ের শেষটা দুর্দান্ত করায় যে স্বস্তি ছিল বাংলাদেশের, তা কিছুটা হলেও উবে গেল বোলিংয়ের শুরুটায়।

হারারে টেস্টের প্রথম ইনিংসের বাংলাদেশের ৪৬৮ রানের জবাবে দ্বিতীয় দিন শেষে জিম্বাবুয়ের রান ১ উইকেটে ১১৪।

বাংলাদেশকে পেলেও চওড়া হয়ে যায় যার ব্যাট, সেই ব্রেন্ডন টেইলর আবারও শুরুটা করেছেন দুর্দান্ত। ৪৬ বল খেলে অপরাজিত তিনি ৩৭ রানে।

প্রথম দিন এক পর্যায়ে ১৩২ রানে ৬ উইকেট হারানো বাংলাদেশ দ্বিতীয় দিনে পেরিয়ে যায় সাড়ে চারশ। আটে নেমে মাহমুদউল্লাহর উপহার দেন ১৫০ রানের অপরাজিত ইনিংস। দশে নেমে তাসকিন আহমেদ করেন ৭৫। দুজনে গড়েন ১৯১ রানের জুটি, টেস্ট ইতিহাসে যা নবম উইকেটে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ।

উইকেটে প্রথম দিনে পেসারদের জন্য সহায়তা যা ছিল, দ্বিতীয় দিনে তা উধাও পুরোপুরি। ব্যাটিংয়ের জন্য উইকেট হয়ে যায় দারুণ। বাংলাদেশ যেমন তা কাজে লাগায়, জিম্বাবুয়েও থাকেনি পিছিয়ে।

জিম্বাবুয়ের দুই ওপেনারই অনভিজ্ঞ। মিল্টন শুম্বা খেলছেন তৃতীয় টেস্ট, টাকুদজয়নাশে কাইটানোর অভিষেক আন্তর্জাতিক ম্যাচ। কিন্তু এই দুজনই দলকে গড়ে দেন ভালো ভিত।

নতুন বলে ভালো করতে পারেননি ইবাদত হোসেন চৌধুরি।নতুন বলে ভালো করতে পারেননি ইবাদত হোসেন চৌধুরি।শুরুটা একদম সাবধানী করেন দুজন। ৫ ওভারে রান আসে ৫। এরপর ইবাদত হোসেন চৌধুরির আলগা কিছু বল কাজে লাগিয়ে রানও বাড়ান দুজন।
নতুন বলে তাসকিন দারুণ বোলিং করেন। তাসকিনের প্রথম দুই স্পেল মিলিয়ে ছিল ৮-৬-২-০। কিন্তু সুযোগ সৃষ্টি হয়নি। আরেক পাশে ইবাদত ধরে রাখতে পারেননি চাপ। স্পিন আক্রমণে আমার পরও মেলেনি সাফল্য। সাকিব প্রথম দুই ওভার মেডেন নিলেও পরের চার ওভারে রান দেন ২৩।

শেষ পর্যন্ত দ্বিতীয় স্পেলে ফিরে এই জুটি ভাঙেন সাকিবই। ততক্ষণে ২৭ ওভার পেরিয়ে গেছে, নতুন বলের ধার হারিয়ে গেছে। স্কোরবোর্ডে জমা হয়েছে ৬১ রান। স্পিনারদের বারবার সুইপ খেলার প্রবণতা কাল হয় শুম্বার জন্য। সু্ইপ করতে গিয়েই ৪১ রানে এলবিডব্লিউ হন বাঁহাতি ব্যাটসম্যান।

সেই উইকেটের পর আরেকটা উইকেটের পথ মেলেনি। টেইলর গিয়েই দারুণ ইতিবাচক খেলতে থাকেন। কাইটানো আগলে রাখেন আরেকপাশ। জিম্বাবুয়ে পেয়ে যায় আরেকটি অর্ধশত রানের জুটি।

তৃতীয় পেসার বা আরেকজন বোলারের ঘাটতি এ দিনই ফুটে উঠেছে কিছুটা।

এমনকি দিনের শেষ বলেও তাসকিনকে বাউন্ডারি মারেন টেইলর। সব মিলিয়ে পরিষ্কার, তৃতীয় দিনে বাংলাদেশের বোলারদের অপেক্ষায় কঠিন পরীক্ষা।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

বাংলাদেশ ১ম ইনিংস: (আগের দিন ২৯৪/৮) ১২৬ ওভারে ৪৬৮ (মাহমুদউল্লাহ ১৫০*, তাসকিন ৭৫, ইবাদত ০; মুজারাবানি ২৯-৪-৯৪-৪, এনগারাভা ২৩-৫-৮৩-১, টিরিপানো ২৩-৫-৫৮-২, নিয়াউচি ১৭-১-৯২-২, মায়ার্স ৩-১-১৩-০, শুম্বা ২১-৪-৬৪-১, কাইয়া ১০-০-৪৩-০)।

জিম্বাবুয়ে ১ম ইনিংস: ৪১ ওভারে ১১৪/১ (শুম্বা ৪১, কাইটানো ৩৩*, টেইলর ৩৭*; তাসকিন ১০-৬-১৬-০, ইবাদত ৯-২-২৮-০, সাকিব ১৩-২-৪৩-১, মিরাজ ৯-১-২৪-০)।


-->


সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক: আবু সুফিয়ান
চেয়ারম্যান: মুসলিমা সুফিয়ান

কল: 01723-980255,01919-972103
নিউজ রুম :01710-972103
ইমেল: Photonews24@yahoo.com

১২মধ্য বেগুনবাড়ি,তেজগাঁও শিল্প এলাকা,ঢাকা -১২০৮
ইমেল: shufian707@gmail.com