বৃহস্পতিবার , ২৪ জুন ২০২১


করোনার নেপালি ভ্যারিয়েন্ট!




ফটো নিউজ ২৪ : 04/06/2021


-->

নাগরিকদের জন্য বিদেশে ভ্রমণ তালিকায় পর্তুগালকে সবুজ তালিকা থেকে সরিয়ে দিয়েছে বৃটেন। এরফলে বৃটেন থেকে কেউ পর্তুগাল সফর করতে পারবেন না এবং সেখান থেকে কেউ ফিরলে তাকে ১০ দিনের আইসোলেশনে থাকতে হবে। বৃটিশ মন্ত্রীরা বলছেন, কোভিডের নেপালি ভ্যারিয়েন্ট মোকাবেলা করতেই এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এ খবর দিয়েছে স্কাই নিউজ।

তথাকথিত এই নেপাল ভ্যারিয়েন্ট আসলে প্রথমে ভারতে চিহ্নিত হয়েছিল। এরইমধ্যে করোনাভাইরাসের সহস্রাধিক ভ্যারিয়েন্ট চিহ্নিত হয়েছে। এই ভাইরাসই কোভিড-১৯ রোগের জন্য দায়ি। তবে বিশ্বজুড়ে স্বাস্থ্যবিদরা মূলত সেসব ভ্যারিয়েন্ট নিয়েই উদ্বিগ্ন থাকেন যেগুলো তুলনামূলক অধিক ভয়াবহ। বর্তমানে নেপাল ভ্যারিয়েন্ট বলে কোনো ভ্যারিয়েন্ট নিয়ে পর্যবেক্ষণ চলছে না আবার পাবলিক হেলথ ইংল্যান্ড এ নিয়ে কোনো উদ্বেগও প্রকাশ করেনি।

তবে ভারতীয় ভ্যারিয়েন্টকে উদ্বেগজনক বলে ঘোষণা করা হয়েছে।

যে ভ্যারিয়েন্টের কারণে ভারতে মহামারি চরম আকার ধারণ করেছিল তা নেপালেও ছড়িয়েছে। সেখানে এই ভ্যারিয়েন্টের একটি মিউটেশন শনাক্ত হয়, যার নাম দেয়া হয়েছে কে৪১৭এন। এরপর থেকেই এটিকে নেপাল ভ্যারিয়েন্টও বলা হচ্ছে। এই ভ্যারিয়েন্ট এরইমধ্যে বৃটেনেও শনাক্ত হয়েছে। পাবলিক হেলথ ইংল্যান্ড বা পিএইচই জানিয়েছে, অন্তত ২০ জন এই ভ্যারিয়েন্টে আক্রান্ত রয়েছে। একইসঙ্গে এই ভ্যারিয়েন্ট বৃটেন, পর্তুগাল, যুক্তরাষ্ট্র ও ভারতে দেখা গেছে।

বৃহ¯পতিবার পর্তুগালকে সবুজ তালিকা থেকে বাদ দেয় বৃটেন। কারণ হিসেবে দেশটির পরিবহণ মন্ত্রী গ্রান্ট শ্যাপস বলেন, পর্তুগালে নেপালি মিউটেশন শনাক্ত হওয়ার কারনেই এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। শুক্রবার আবাসন মন্ত্রী রবার্ট জেনরিক বলেন, আপনি যদি পর্তুগালের অবস্থার দিকে তাকান, গত কয়েক সপ্তাহে সেখানে শনাক্তের হার দুইগুন হয়েছে। সেখানে এমনকি নেপালি ভ্যারিয়েন্টও শনাক্ত হয়েছে। তাই আমার ধারণা আমাদেরকে নতুন ভ্যারিয়েন্ট সম্পর্কে হুঁশিয়ার থাকা জরুরি। তবে এখনো কে৪১৭এন-কে স্বীকৃতি দেয়নি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (হু)। বৃহ¯পতিবার হু জানিয়েছে, তারা এখনো নেপালের এই ভ্যারিয়েন্ট সম্পর্কে অবগত নয়। নেপালের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ও এ সম্পর্কে কিছু জানেনা বলে দাবি করেছে।

বিজ্ঞানীরা আশা করছেন, বর্তমানে যেসব ভ্যাকসিন প্রদান করা হচ্ছে তা করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট ও মিউটেশনগুলোর বিরুদ্ধেও কার্যকরি হবে। যদিও অন্য ভ্যারিয়েন্টের তুলনায় ভারতীয় ভ্যারিয়েন্টের বিরুদ্ধে ফাইজারের ভ্যাকসিন তুলনামূলক কম কার্যকরি বলে জানা যাচ্ছে। তাছাড়া, বয়স যত বেশি হয় এসব ভ্যাকসিনের কার্যকরিতা তত কমতে থাকে।


-->


সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক: আবু সুফিয়ান
চেয়ারম্যান: মুসলিমা সুফিয়ান

কল: 01723-980255,01919-972103
নিউজ রুম :01710-972103
ইমেল: Photonews24@yahoo.com

১২মধ্য বেগুনবাড়ি,তেজগাঁও শিল্প এলাকা,ঢাকা -১২০৮
ইমেল: shufian707@gmail.com