বৃহস্পতিবার , ২৪ জুন ২০২১


নেতানিয়াহু যুগের সমাপ্তির প্রবল সম্ভাবনা




ফটো নিউজ ২৪ : 30/05/2021


-->

ইসরায়েলে রাজনৈতিক নাটকের এবারের অঙ্কে সেখানে প্রধানমন্ত্রী পদে রেকর্ড সময় ধরে থাকা বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু যুগের সমাপ্তির প্রবল সম্ভাবনা দেখা যাচ্ছে।

দুই বছরে চার চারটি পার্লামেন্ট নির্বাচনেও সমাধান না মেলার পর দেশটির বিরোধীদলীয় নেতা ইয়ার লাপিদ নতুন একটি সরকার গঠনে এ মাসের শুরুর দিকে ২৮ দিনের সময় পেয়েছিলেন, বুধবার ওই সময়সীমা শেষ হতে যাচ্ছে।

তবে তার আগেই তিনি সরকার গঠনে সক্ষম একটি জোট গঠনের দ্বারপ্রান্তে পৌঁছে গেছেন বলে স্থানীয় গণমাধ্যমগুলো জানিয়েছে। তেমনটা হলে আর দিন কয়েকের মধ্যেই নেতানিয়াহু’র ১২ বছর ধরে চলা প্রধানমন্ত্রীত্বকালের অবসান ঘটবে।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, সরকার গঠনে লাপিদ সফল হবেন কিনা, তার অনেকটাই এখন নির্ভর করছে কট্টর ডানপন্থি রাজনীতিক নাফতালি বেনেতের ওপর, পার্লামেন্টে যার ইয়ামিনা পার্টির ছয়টি আসন আছে।

ইয়েশ আতিদ পার্টির নেতা লাপিদের সঙ্গে জোট বাঁধছেন কি বাঁধছেন না, ৪৯ বছর বয়সী বেনেত সে বিষয়ে খুব শিগগিরই ঘোষণা দিতে যাচ্ছেন। এমনকি রোববারও এ ঘোষণা আসতে পারে।

তবে তার আগে তাকে নিজ দলের আইনপ্রণেতাদেরকে নেতানিয়াহুবিরোধী ‘পরিবর্তনের’ সরকারে যোগ দিতে রাজি করাতে হবে, যেখানে ডান, মধ্যপন্থি, এমনকী বামপন্থিদেরও দেখা মিলবে।

ইসরায়েলে চলতি বছরের ২৩ মার্চ হওয়া পার্লামেন্ট নির্বাচনে কেউ সরকার গঠনের মতো প্রয়োজনীয় সংখ্যক আসন না পাওয়ায় যে অচলাবস্থার সৃষ্টি হয়েছিল, তা কাটিয়ে ওঠার লক্ষ্যে লাপিদ সবাইকে নিয়ে যে জোট বানাতে চলেছেন, তাতে এত বৈচিত্র যে তা যে কোনো সময় ভেঙে পড়তে পারে বলে আশঙ্কা পর্যবেক্ষকদের।

ডান, মধ্য ও বামপন্থিদের এ জোটও সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণে যথেষ্ট হবে না; সে ক্ষেত্রে তাদের চেয়ে থাকতে হবে পার্লামেন্টের আরব সদস্যদের দিকে, যাদের রাজনৈতিক দৃষ্টিভঙ্গির সঙ্গে ইয়ামিনার দৃষ্টিভঙ্গিতে যোজন যোজন ফারাক।

সাম্প্রতিক দিনগুলোতে বেনতকে চুপচাপ থাকতে দেখা গেছে। অন্যদিকে লিকুদ পার্টির প্রধান নেতানিয়াহু শুক্রবার এক টুইট ও ভিডিও দিয়ে তার ক্ষমতাকাল শেষের জল্পনা আরও উসকে দিয়েছেন।

‘রিয়েল অ্যালার্ট’ লেখা টুইটের মাধ্যমে তিনি ‘বিপজ্জনক একটি বাম ঘরানার’ সরকার আসার সম্ভাবনা নিয়ে সতর্ক করেছেন।

প্রথমে বেনেত প্রধানমন্ত্রী হবেন এবং পরে ওই দায়িত্ব লাপিদের কাছে হস্তান্তর করবেন, এ শর্তে দুইজনের মধ্যে সমঝোতা হয়েছে, এ সংক্রান্ত খবর চাউর হওয়ার পর শনিবার ইয়ামিনা পার্টি জানায়, রোববার তাদের শীর্ষ নেতা দলীয় আইনপ্রণেতাদের সঙ্গে বসবেন।

ইসরায়েলের সঙ্গে হামাসের ১০ মে সংঘাত শুরুর আগে আগেই বেনেত ও লাপিদের মধ্যে সরকার গঠন নিয়ে চুক্তি চূড়ান্ত হয়ে গিয়েছিল বলে ইঙ্গিত স্থানীয় গণমাধ্যমগুলোর।

গাজার সশস্ত্র গোষ্ঠীদের সঙ্গে ইসরায়েলি বাহিনীর লড়াইয়ের ওই সময়ে বেনেত মধ্য ও বামপন্থিদের সঙ্গে জোট গঠনের চেষ্টা ত্যাগ করছেন বলে জানিয়েছিলেন।

এর কয়েকদিন পরই যুদ্ধবিরতি কার্যকর হয়, ইসরায়েলি সড়কগুলোতে আরব ও ইহুদিদের মধ্যে সহিংসতাও হ্রাস পায়, ফের সামনে আসে লাপিদ-বেনেত জুটির সরকার গঠনের সম্ভাবনা।

অবশ্য এখনও এ বিষয়ে ‘চূড়ান্ত কিছু বলার সময় হয়নি’ বলে মত ইসরায়েলি রাজনৈতিক ভাষ্যকারদের।

“প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহুর বিরোধী পরিবর্তনের সরকার এখনও দৃশ্যমান হয়নি। এটি এখনও অকালপক্ক, যে কারণে শ্যাম্পেনের বোতল খোলাও যেমন ঠিক হবে না, তেমনি ঠিক হবে না শোকের পোশাক পরে ফেলাও,” রোববার বাম ঘরানার সংবাদপত্র হারেৎজে এমনটাই লিখেছেন কলামনিস্ট ইয়োসি ভারতার।

৫৭ বছর বয়সী লাপিদ যদি শেষ পর্যন্ত বুধবারের মধ্যে নতুন সরকার গঠনের ঘোষণা দিতে না পারেন, তাহলে ইসরায়েলকে ২০১৯ সালের এপ্রিলের পর পঞ্চম সাধারণ নির্বাচনের দিকে এগুতে হবে।

তেমন পরিস্থিতি এড়াতে চান বলে বেনেত আগেই জানিয়েছিলেন।


-->


সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক: আবু সুফিয়ান
চেয়ারম্যান: মুসলিমা সুফিয়ান

কল: 01723-980255,01919-972103
নিউজ রুম :01710-972103
ইমেল: Photonews24@yahoo.com

১২মধ্য বেগুনবাড়ি,তেজগাঁও শিল্প এলাকা,ঢাকা -১২০৮
ইমেল: shufian707@gmail.com