সোমবার , ১৭ জানুয়ারী ২০২২


কাজাখস্তানে হুঁশিয়ারি ছাড়াই গুলির নির্দেশ!




ফটো নিউজ ২৪ : 07/01/2022


-->

কাজাখস্তানের প্রেসিডেন্ট কাসিম-জোমার্ট তোকায়েভ জানিয়েছেন নিরাপত্তা বাহিনীকে হুঁশিয়ারি ছাড়াই বিক্ষোভকারীদের ওপর গুলি চালানোর ক্ষমতা দিয়েছেন তিনি। প্রেসিডেন্ট আরও বলেন, দেশের মূল শহর আলমাতিতে হামলা চালিয়েছে প্রায় ‘২০ হাজার দস্যু’। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

জ্বালানির মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে কাজাখস্তানে গত রবিবার বিক্ষোভ শুরু হয়েছে। সরকারবিরোধী বিক্ষোভকারীদের দমন অব্যাহত রেখেছে কাজাখ নিরাপত্তা বাহিনী। তাদের সহায়তায় কাজাখস্তানে পৌঁছেছে রাশিয়ার নেতৃত্বাধীন বাহিনী। প্রেসিডেন্টের অনুরোধে এই বাহিনী বিক্ষোভ দমনে সহায়তা করবে। বিক্ষোভের জন্য বিদেশে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ‘সন্ত্রাসীদের’ দায়ী করেছেন প্রেসিডেন্ট তোকায়েভ।

কাজাখ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, এখন পর্যন্ত বিক্ষোভে ২৬ জন ‘সশস্ত্র অপরাধী’ এবং ১৮ জন নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্য নিহত হয়েছে।

টেলিভিশনে দেওয়া এক ভাষণে প্রেসিডেন্ট তোকায়েভ জানান, রাশিয়া এবং প্রতিবেশি দেশগুলোর শান্তিরক্ষী বাহিনী তার অনুরোধে কাজাখস্তানে পৌঁছেছে। এই বাহিনী সাময়িকভাবে দেশটির নিরাপত্তা নিশ্চিতে সহায়তা দেবে।

রাশিয়ার নেতৃত্বাধীন কালেক্টিভ সিকিউরিটি ট্রিটি অর্গানাইজেশনের (সিএসটিও) প্রায় আড়াই হাজার সেনা কাজাখস্তানে পৌঁছেছে। সেনা পাঠানোয় রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে ‘বিশেষ ধন্যবাদ’ জানিয়েছেন তোকায়েভ।

এদিকে শুক্রবার সকালে আলমাতি শহরের মূল স্কয়ারে নতুন করে গুলির শব্দ শোনা গেছে।

সরকার ইতোমধ্যেই জ্বালানির মূল্য বাড়ানো ছয় মাসের জন্য স্থগিত করেছে। তবে সেই ঘোষণাতেও বিক্ষোভ থামেনি। বরং রাজনৈতিক উদ্বেগ থেকে বিক্ষোভ আরও তীব্র হয়েছে।

উল্লেখ্য, কাজাখস্তানকে প্রায়ই কর্তৃত্ববাদী রাষ্ট্র বলে মনে করা হয়। দেশটির বেশিরভাগ নির্বাচনে ক্ষমতাসীনরা প্রায় শতভাগ ভোট পেয়ে থাকে। এমনকি দেশটিতে কোনও কার্যকর বিরোধী দল নেই।

 


-->


সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক: আবু সুফিয়ান
চেয়ারম্যান: মুসলিমা সুফিয়ান

কল: 01723-980255,01919-972103
নিউজ রুম :01710-972103
ইমেল: Photonews24@yahoo.com

১২মধ্য বেগুনবাড়ি,তেজগাঁও শিল্প এলাকা,ঢাকা -১২০৮
ইমেল: shufian707@gmail.com