রবিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২১
  • প্রচ্ছদ » আইন » ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পিএইচডি থিসিস কিভাবে সংরক্ষণ হয়, জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট


ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পিএইচডি থিসিস কিভাবে সংরক্ষণ হয়, জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট




ফটো নিউজ ২৪ : 11/01/2021


-->

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে (ঢাবি) জমা দেওয়া পিএইচডি গবেষণা অভিসন্দর্ভ (থিসিস) কিভাবে সংরক্ষণ করা হয় এবং তা মূল্যায়নের ক্ষেত্রে কোনো সফটওয়্যাার বা উন্নত প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয় কিনা, তা জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট। দুই মাসের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে তা জানাতে বলা হয়েছে।

বিচারপতি জে বি এম হাসান ও বিচারপতি মো. খায়রুল আলমের হাইকোর্ট বেঞ্চ সোমবার এ আদেশ দেন। সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মনিরুজ্জামান লিংকনের করা এক রিট আবেদনে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের (ইউজিসি) দেওয়া এক প্রতিবেদনের ওপর শুনানি শেষে এ আদেশ দেন আদালত। রিট আবেদনকারী মনিরুজ্জামান লিংকন নিজেই শুনানি করেন। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ব্যারিস্টার এবিএম আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ বাশার।

‘ঢাবি শিক্ষকের পিএইচডি গবেষণার ৯৮% নকল’ শিরোনামে গতবছর ২১ জানুয়ারি একটি জাতীয় দৈনিকে প্রকাশিত প্রতিবেদন সংযুক্ত করে পিএইচডি ও সমমানের ডিগ্রি দেওয়ার ক্ষেত্রে জালিয়াতি বন্ধের নির্দেশনা চেয়ে এ রিট আবেদন করা হয়। রিট আবেদনে পিএইচডি গবেষণা অভিসন্দর্ভ (থিসিস) অনুমোদনের আগে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) মন্ত্রণালয়ের ছাড়পত্র (এনওসি) নেওয়ার বিধান করার নির্দেশনা চাওয়া হয়। এ রিট আবেদনের শুনানি নিয়ে গতবছর ৪ ফেব্রুয়ারি আদেশ দেন হাইকোর্ট। আদেশে সরকারি এবং বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে পিএইচডি ও সমমানের ডিগ্রি কীভাবে অনুমোদন করা হয়, তা খতিয়ে দেখে তিন মাসের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনকে (ইউজিসি) নির্দেশ দেওয়া হয়। একইসঙ্গে ‘ঢাবি শিক্ষকের পিএইচডি গবেষণার ৯৮% নকল’- এ বিষয়ে তদন্ত করে ৬০ দিনের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে ঢাবি কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দেওয়া হয়। ওই আদেশ অনুসারে ঢাবি এবং ইউজিসি আদালতে প্রতিবেদন দেয়।

শুনানি শেষে ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ বি এম আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ বাশার সাংবাদিকদের বলেন, আদেশ অনুসারে যথারীতি তদন্ত চলছে। এছাড়া ইউজিসিও প্রতিবেদন দিয়েছে। সে প্রতিবেদন দেখে আদালত আদেশ আজ(সোমবার) আরেকটি নির্দেশ দিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে। পিএইচডি গবেষণা অভিসন্দর্ভ (থিসিস) কিভাবে সংরক্ষণ করা হয় এবং তা মূল্যায়নের ক্ষেত্রে কোনো সফটওয়্যার বা উন্নত প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয় কিনা তা জানাতে হবে।


-->


সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক: আবু সুফিয়ান
চেয়ারম্যান: মুসলিমা সুফিয়ান

কল: 01723-980255,01919-972103
নিউজ রুম :01710-972103
ইমেল: Photonews24@yahoo.com

১২মধ্য বেগুনবাড়ি,তেজগাঁও শিল্প এলাকা,ঢাকা -১২০৮
ইমেল: shufian707@gmail.com