বুধবার , ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০


জীবাণুমুক্ত করার জন্য প্রয়োজনীয় জিনিসগুলো কিন্তু আপনার বাড়িতেই রয়েছে




ফটো নিউজ ২৪ : 21/07/2020


-->

আসিফ সুফিয়ান- শক্তিশালী রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা এবং স্বাস্থ্যবিধি বজায় রাখা- দুটি মাত্র উপায় যা আমাদের করোনাভাইরাস থেকে দূরে রাখতে পারে। ভাইরাসটি সম্পর্কে আমরা এখনও পর্যন্ত এটুকু জানি, এটি কার্ডবোর্ডে প্রায় ২৪ ঘণ্টা এবং প্লাস্টিকের উপরে তিনদিন থাকতে পারে। অন্যান্য গবেষণায় দেখা গেছে যে ভাইরাসটি কাঁচ, ধাতু, প্লাস্টিকে নয়দিন পর্যন্ত বেঁচে থাকতে পারে। সংক্রমণ থেকে দূরে থাকার সর্বোত্তম উপায় হলো, যেসব জায়গা ঘন ঘন স্পর্শ করা হয়, সেগুলো নিয়মিত জীবাণুমুক্ত করা।

বাড়ির বিভিন্ন জায়গা জীবাণুমুক্ত করার জন্য প্রয়োজনীয় জিনিসগুলো কিন্তু আপনার বাড়িতেই রয়েছে।

 

ব্লিচ
সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন (সিডিসিপি) ভাইরাস নির্মূলের জন্য ব্লিচ ব্যবহার করার পরামর্শ দেয়। ভাইরাসটি সঠিকভাবে দূর করার জন্য, এক গ্যালন পানিতে আধা কাপ ব্লিচ মিশিয়ে নিন। জায়গাগুলো জীবাণুমুক্ত করার সময় গ্লাভস পরতে ভুলবেন না। ব্লিচটি অ্যামোনিয়া বা অন্য কোনো রাসায়নিকের সাথে মেশাবেন না। একবার মেশানো হয়ে গেলে, একদিনের বেশি রাখবেন না। কারণ এরপরে ব্লিচ কার্যকারিতা হারাতে পারে এবং এটি যে পাত্রে রাখা হয় সেটি নষ্ট হয়ে যেতে পারে।

 

আইসোপ্রোপাইল অ্যালকোহল
শক্ত কোনো জায়গা পরিষ্কার করার জন্য, কমপক্ষে ৭০ শতাংশ অ্যালকোহল ব্যবহার করা উচিত। ডিটারজেন্ট এবং পানির সাহায্যে জায়গাটি পরিষ্কার করুন এবং তারপরে অ্যালকোহল দ্রবণটি প্রয়োগ করুন। ত্রিশ মিনিটের জন্য রেখে দিন। এরপরে মুছুন। অ্যালকোহল প্রায় সমস্ত জিনিসে ব্যবহার করা নিরাপদ, যদিও এটি কিছু প্লাস্টিকের জিনিসকে বিবর্ণ করতে পারে।

 

হাইড্রোজেন পারক্সাইড
রোগ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ কেন্দ্রের মতে, তিন শতাংশ হাইড্রোজেন পারক্সাইড রাইনোভাইরাস হত্যার ক্ষেত্রে কার্যকর। যারা জানেন না তাদের জন্য করোনাভাইরাসের চেয়ে রাইনোভাইরাসকে দূর করা আরও বেশি কঠিন। হাইড্রোজেন পারক্সাইড সহজেই করোনাভাইরাসকে ভেঙে ফেলতে পারে। একটি স্প্রে বোতলে হাইড্রোজেন পারক্সাইড ঢেলে যেসব জায়গা পরিষ্কার করা প্রয়োজন, সেখানে স্প্রে করতে পারেন। মিনিট খানেকের জন্য রেখে দিন এবং তারপরে এটি একটি কাপড় দিয়ে মুছুন। হাইড্রোজেন পারক্সাইড ব্লিচের মতো কাজ করে, তাই এটি জামাকাপড়েও ব্যবহার করা যেতে পারে। অক্সিজেন এবং পানিতে নষ্ট হয়ে যেতে পারে তাই এটি মোছা বা ধোয়ার দরকার নেই।

 

সাবান এবং পানি
এটি আমরা প্রায় সবাই জানি যে, সাবান এবং পানি দিয়ে হাত ধোয়া সবচেয়ে কার্যকরী উপায়। ভাইরাসটি ধ্বংস করতে কমপক্ষে ২০ সেকেন্ডের জন্য হাত সাবান এবং পানি দিয়ে ধুয়ে নিন। আপনি যেকোনো সাবান ব্যবহার করতে পারেন।

জীবাণুমুক্ত করতে যেসব জিনিস ব্যবহার করবেন না:

 

ঘরে তৈরি স্যানিটাইজার
অনেকেই ঘরে বসে হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরির চেষ্টা করছেন। তবে বাড়িতে তৈরি স্যানিটাইজারগুলো খুব একটা কাজে আসে না। এর কারণ হলো, বেশিরভাগ লোকই সঠিক পরিমাণে উপাদান ব্যবহার করতে ভুল করেন।

ঘরে তৈরি হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার আপনাকে সুরক্ষিত রাখার বদলে ক্ষতি করতে পারে। বিভিন্ন কোম্পানি সঠিক পণ্য প্রস্তুত করতে প্রচুর সময় ব্যয় করে। তাই তাদের উপর আস্থা রেখে ঘরে তৈরি না করে বরং বাজার থেকে স্বীকৃত কোনো কোম্পানির হ্যান্ড স্যানিটাইজার কিনুন।

 

টি ট্রি অয়েল
অনেকে ধারণা করেন, টি ট্রি অয়েল করোনাভাইরাসকে মেরে ফেলতে পারে। তবে কোনো গবেষণায় এমন কোনো প্রমাণ এখনও মেলেনি।


-->


সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক: আবু সুফিয়ান
চেয়ারম্যান: মুসলিমা সুফিয়ান

কল: 01723-980255,01919-972103
নিউজ রুম :01710-972103
ইমেল: Photonews24@yahoo.com

১২মধ্য বেগুনবাড়ি,তেজগাঁও শিল্প এলাকা,ঢাকা -১২০৮
ইমেল: shufian707@gmail.com