মঙ্গলবার , ৭ জুলাই ২০২০


বাঁদুরের ওপর পরীক্ষা থেকে ছড়িয়েছে করোনা ভাইরাস!




ফটো নিউজ ২৪ : 12/04/2020


-->

গুহা থেকে ধরা বাঁদুরের ওপর করোনা ভাইরাস নিয়ে গবেষণা করছিলেন চীনের উহান শহরের একটি ল্যাবের বিজ্ঞানীরা। এতে যুক্তরাষ্ট্রের অনুদান ছিল ৩৭ লাখ ডলার। ওই গবেষণা থেকেই করোনা ভাইরাস বিস্তার লাভ করেছে। এ বিষয়ে লন্ডনের অনলাইন ডেইলি মেইলের হাতে ডকুমেন্ট এসেছে বলে ওই পত্রিকাটি লিখেছে। এতে বলা হয়েছে, সারাবিশ্বে যে করোনা ভাইরাস মহামারি দেখা দিয়েছে তার মূল উৎস ওই গবেষণাগার। ডেইলি মেইল যে ডকুমেন্ট হাতে পেয়েছে, তাতে বলা হয়েছে কমপক্ষে ১০০০ মাইল দূরে ইউনান প্রদেশের গুহা থেকে ধরা হয়েছিল ওই বাঁদুরগুলো। তার জিনোম পরীক্ষা করা হচ্ছিল উহান ইন্সটিটিউট অব ভাইরোলজি’তে। যুক্তরাষ্ট্রের অনুদানে চলছিল ওই গবেষণা।

কভিড-১ বা করোনা ভাইরাসের জিনোম পরীক্ষা করে দেখা গেছে এর সঙ্গে মিল আছে ইউনানের গুহার ওই বাঁদুরের। গত সপ্তাহে ডেইলি মেইল রিপোর্ট প্রকাশ করে যে, ওই ইন্সটিটিউট থেকে দুর্ঘটনাক্রমে ভাইরাস অবমুক্ত হয়ে বিশ্বজুড়ে এই মহামারি সৃষ্টি করেছে। সরকারের সিনিয়র সূত্রগুলো বলেছেন, এখনও পর্যন্ত বৈজ্ঞানিকভাবে মনে করা হয়, এই ভাইরাস উহানের একটি জীবিত পশুর মার্কেট থেকে মানুষে সংক্রমিত হয়েছে। তবে চীনের ওই ল্যাবরেটরি থেকে দুর্ঘটনার কথা এড়িয়ে যাওয়া যায় না। অযাচিত একটি সূত্রের মতে, বাঁদুরের দেহ থেকে রক্ত ছড়িয়ে পড়ে। তাতে ছিল ওই ভাইরাস। এ থেকে ওই ইন্সটিটিউটের বিজ্ঞানীরা সংক্রমিত হয়ে থাকতে পারেন। পরে সেখান থেকে তা সংক্রমিত হয়েছে সাধারণ মানুষের মধ্যে।
ডেইলি মেইল লিখেছে, যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অব হেলথের অর্থায়নে একটি প্রকল্পে বাঁদুরের ওপর বিজ্ঞানীরা ওই পরীক্ষা করছিলেন। সেখানকার গবেষণা রিপোর্ট প্রকাশিত হয় ২০১৭ সালের নভেম্বরে। ওই গবেষণা রিপোর্টের শিরোনাম ‘ডিসকভারি অব এ রিচ জিন পুল অব ব্যাট সার্স-রিলেটেড করোনাভাইরাস প্রোভাইডস নিউ ইনসাইটস ইনটু দ্য অরিজিন অব সার্স করোনাভাইরাস’। এর মূল বক্তব্য ছিল, চীনের ইউনান প্রদেশের গুহা থেকে আটক করা বাঁদুরের দেহ থেকে করোনা ভাইরাসের গবেষণার জন্য ওই ল্যাবরেটরিতে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। এনিম্যাল এথিকস কমিটি অব দ্য উহান ইন্সটিটিউট অব ভাইরোলজির অনুমোদনক্রমে পশুচিকিৎসকরা নতুনা সংগ্রহ বা তা নিয়ে গবেষণা কর্মকান্ড পরিচালনা করেন। ইউনান প্রদেশের কুনমিংয়ের একটি গুহা থেকে ২০১১ সালের এপ্রিল থেকে ২০১৫ সালের অক্টোবর পর্যন্ত সময়ে ১০ বার বাঁদুরের নমুনা সংগ্রহ করা হয়।
উহান ইন্সটিটিউট অব ভাইরোলজি হলো চীনের মূল ভূখন্ডে অত্যাধুনিক সবচেয়ে এগিয়ে থাকা ল্যাবরেটরি। উহানে যে কুখ্যাত পশু মার্কেট থেকে করোনা ছড়িয়ে পড়েছে বলে ধারণা করা হয় সেখান থেকে এই ইন্সটিটিউটের দূরত্ব ১০ মাইল। এই ইন্সটিটিউটে যুক্তরাষ্ট্রের জনগণের ট্যাক্সের অর্থ খরচ করার কারণে তার সরকারের বিরুদ্ধে কড়া সমালোচনা করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসার গ্রুপ হিসেবে পরিচিত হোয়াইট কোট ওয়েস্ট-এর প্রেসিডেন্ট অ্যান্থনি বেলোত্তি। মার্কিন সরকারের এমন কর্মকাণ্ডের নিন্দা জানিয়েছেন কংগ্রেসম্যান ম্যাট গায়েটজ। তিনি বলেছেন, উহান ইন্সটিটিউটে পশুদের ওপর ভয়াবহ ও নিষ্ঠুর পরীক্ষার জন্য যুক্তরাষ্ট্র বছরের পর বছর অর্থ খরচ করে আসছে, এটা জানতে পেরে খুব বিরক্তি লাগছে। ওই উহান ইন্সটিটিউট থেকেই বিশ্বজুড়ে করোনা মহামারি ছড়াতে পারে। যুক্তরাষ্ট্রের কোনো কর্তৃপক্ষের এতে কোনো নজরদারি ছিল না।


-->


সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক: আবু সুফিয়ান
চেয়ারম্যান: মুসলিমা সুফিয়ান

কল: 01723-980255,01919-972103
নিউজ রুম :01710-972103
ইমেল: Photonews24@yahoo.com

১২মধ্য বেগুনবাড়ি,তেজগাঁও শিল্প এলাকা,ঢাকা -১২০৮
ইমেল: shufian707@gmail.com