শুক্রবার, ৩ জুলাই ২০২০


বাড়ির স্বপ্ন এখন তাদের জন্য দুঃস্বপ্ন




ফটো নিউজ ২৪ : 18/12/2019


-->

প্রত্যেকটি মানুষের স্বপ্ন থাকে তাদের নিজেদের একটি ছোট্ট বাড়ি থাকবে যেখানে সে তার পরিবারে এবং আপন মানুষগুলোর সাথে একসাথে বসবাস করবে, কিন্তু সবার স্বপ্ন বাস্তব হয় না কিছু স্বপ্ন স্বপ্নই থেকে যায়। সেরকম একটি পরিবার হল রাজধানীর কল্যাণপুর এলাকার ১১ নং রোডে অবস্থিত ৬০ নং জমির মালিক চার ভাই, তিন বোন এবং তাদের পরিবারবৃন্দ।

পর্যাপ্ত অর্থ ও সময়ের অভাবে নিজেরা বাড়ি করতে না পারায় আবাসন কোম্পানি অঙ্গন প্রপার্টিজ লিঃ (প্রধান কার্যালয়- সেনা কল্যাণ ভবন, স্যুইট নং- ১১০১-১১০৩, ১২ম তলা, ১৯৫, মতিঝিল, বা/এ, ঢাকা ) কে জমি দিয়ে নিশ্চিন্ত হতে চেয়েছিলেন।

গত ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০১১ সালে উক্ত জমিতে দশ তলা আবাসিক ভবন নির্মাণের জন্য অঙ্গন প্রপার্টিজ লিঃ এর সাথে চুক্তিবদ্ধ হন তারা।

চুক্তি মোতাবেক, বর্ধিত ছয় মাসসহ মোট বিয়াল্লিশ মাসের মধ্যে ফ্ল্যাট হস্তান্তর করার কথা ।

কিন্তু আশ্চর্যের বিষয় এই যে, ফ্লাট হস্তান্তর তো দূরে থাক, এ অবধি উক্ত জমিতে কোনো প্রকার নির্মাণ কাজই আবাসন কোম্পানিটি শুরু করেনি। যেখানে, ৮ সেপ্টেম্বর ২০১৩ ইং তারিখে রাজউক হইতে প্ল্যান পাশ করা হয়।

অঙ্গনের বারংবার চিঠিতে ভূমির সমস্ত স্থাপনা ভেঙে ভূমি বুঝিয়ে দেয়ার কথা বলা হয়।

যার পরিপ্রেক্ষিতে ভূমির মালিকগণ সমস্ত স্থাপনা ভেঙে জায়গাটি খালি করে। এটি বলা প্রয়োজন যে ভূমি মালিকগন উক্ত জমিতে নিজ নির্মিত বাড়িঘরে বসবাস করতেন এবং এর কিছু অংশ ভাড়া দিয়ে সংসার ব্যয় চালাতেন এছাড়া জমিটিতে বেশ কিছু ফলজ ও মূল্যবান কাঠ গাছ ও ছিল যা সব কিছুই কেটে ফেলা হয়েছিল নির্মাণ কাজ এর জন্য।

যেখানে নির্মাণ কাজ তো দূরের কথা, এই ৪৬ মাসে / ৩ বছর ১০ মাসে একটি ইটও গাথা হয়নি এবং সেই জমি পরিত্যক্ত অবস্থায় পড়ে থাকার কারনে সেখানে মাদক সেবন থেকে শুরু করে অনেক অপকর্ম ঘটছে, তার প্রেক্ষিতে মিরপুর থানায় একটি জেনারেল ডাইরিও করা হয়।

নির্মাণকাজ আরাম্ভের জন্য অঙ্গন প্রপার্টিজকে বারবার মৌখিকভাবে, পত্রের মাধ্যমে এবং অবশেষে লিগ্যাল নোটিশের মাধ্যমে অনুরোধ করা হয়েছে। সশরীরে বৈঠক এর জন্যে তাদের গুলশান অফিসে গেলেও কোন কর্মকর্তা কোনরূপ সহযোগিতা করেনি।

প্রথমদিকে তারা মৌখিক ভাবে কাজ আরম্ভ করার আশ্বাস দিলেও পরবর্তীতে তারা সম্পূর্ণরূপে যোগাযোগ বন্ধ করে দেয়।

প্রথমত বিলম্ব হয়, কিন্তু বিলম্বের জন্য চুক্তি অনুযায়ী জমির মালিকদের ভাড়ার টাকা পরিশোধ করার কথা থাকলেও আবাসন কম্পানিটি তা করেনি বরং লিগ্যাল নোটিশ দেয়ার পর তারা আক্রমণাত্মক হয়ে উঠে যার প্রতি উত্তরে চুক্তির সময় প্রদানকৃত সাইনিং মানি সুদে আসলে ফেরত দেয়ার হুমকি প্রদান করতে থাকে।

মেয়াদ উত্তীর্ন হওয়ার শেষ মুহূর্তে ডাচ বাংলা ব্যাংক এর গুলশান শাখার প্রতিনিধি ঋণ সংক্রান্ত বিষয়ে উক্ত জায়গাটি পরিদর্শনে আসে। যার পরিপ্রেক্ষিতে ০২ আগস্ট ২০১৭ তারিখে চিঠির মাধ্যমে ব্যাংক কে সতর্ক করা হয়।

আবাসন কোম্পানিটি একই সাথে ব্যাংক এর কাছে তথ্য গোপন ও জমির মালিকদের আরেকটি নতুন ফাঁদে ফেলার চেষ্টা করছিল।
এখন জমির মালিক ও তাদের পরিবারবৃন্দরা অন্যের বাসায় ভাড়া থেকে দিনে দিনে আর্থিকভাবে নিঃস্ব হয়ে পড়ছেন।

সন্তানদের পড়াশুনা ও পরিবারের দৈনন্দিন খরচের পাশাপাশি বাড়ী ভাড়া মেটাতে ভূমির মালিকগণ ঋণগ্রস্ত হয়ে পরছেন।

পরিবার গুলোর প্রত্যেকেই এখন মানবেতর জীবন যাপন করছেন। বাড়ির স্বপ্ন এখন তাদের জন্য দুঃস্বপ্নে পরিণত হয়েছে।

অঙ্গন প্রপার্টিজ লিমিটেড এর সাথে বারংবার দেখা বা কথা বলতে চাইলে তাদের থেকে এখন অবদি ভালো সাড়া পাওয়া যাচ্ছে না।

রিয়েল স্টেট খাত দেশে আবাসিক উন্নয়নে বিরাট ভূমিকা পালন করলেও অঙ্গন প্রপার্টিজ লিমিটেড এর মত কিছু সংখ্যক আবাসন কোম্পানির অপরিপক্ব ব্যবসায়ী মনোভাব, তালবাহানার ও জালিয়াতির কারনে অনেক পরিবার তাদের সর্বস্ব হারাচ্ছেন এবং এ খাতের দুর্নাম ছড়িয়ে পড়ছে।

এরা স্থূল ও সূক্ষ্ম উভয়ভাবে প্রতারণা করছে জমির মালিক ও ফ্ল্যাট ক্রেতার সাথে।

আর এভাবে প্রতারণা শিকার হয়েও পরিবারগুলোর কিছুই করার থাকছে না।

এমতাবস্থায় যথাযথ কতৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ এবং এদের প্রতারনা বন্ধের যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহনের মানবিক অনুরোধ করছি।

– প্রতারনার শিকার পরিবারবৃন্দ।

 


-->


সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক: আবু সুফিয়ান
চেয়ারম্যান: মুসলিমা সুফিয়ান

কল: 01723-980255,01919-972103
নিউজ রুম :01710-972103
ইমেল: Photonews24@yahoo.com

১২মধ্য বেগুনবাড়ি,তেজগাঁও শিল্প এলাকা,ঢাকা -১২০৮
ইমেল: shufian707@gmail.com