শনিবার, ৩০ নভেম্বর ২০১৯


আত্মপ্রকাশ করল বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি (মার্কসবাদী)




ফটো নিউজ ২৪ : 30/11/2019


-->

বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি (মার্কসবাদী) নামে নতুন রাজনৈতিক দল গঠন করেছে মতাদর্শ রক্ষা সমন্বয় কমিটি।

দুই দিনব্যাপী জাতীয় সম্মেলনের শেষ দিন শনিবার সাংগঠনিক অধিবেশনে নতুন দল ও নেতৃত্ব নির্বাচন করেন কাউন্সিলররা।

নতুন দলটির সভাপতি হয়েছেন নুরুল হাসান এবং সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন ইকবাল কবির জাহিদ। ওয়ার্কার্স পার্টির সাবেক সাধারণ সম্পাদক বিমল বিশ্বাসকে নতুন দলের উপদেষ্টা নির্বাচিত করেন কাউন্সিলররা।

শনিবার সকালে যশোর জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে নুরুল হাসানের সভাপতিত্বে সাংগঠনিক অধিবেশন শুরু হয়। এতে অংশ নেন ২৫টি সাংগঠনিক জেলা থেকে আসা ১৩০ জন কাউন্সিলর এবং ২৫ জন পর্যবেক্ষক।

অধিবেশনের শুরুতে সম্মেলনের প্রস্তাবনা পেশ করেন বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি মতাদর্শ রক্ষা সমন্বয় কমিটির সমন্বয়ক ইকবাল কবির জাহিদ। ওয়ার্কার্স পার্টির দশম কংগ্রেস উপলক্ষে পেশ করা বিকল্প প্রস্তাবই মতাদর্শ রক্ষা সমন্বয় কমিটির সম্মেলনের প্রস্তাব হিসেবে উত্থাপিত হয়। এর ওপর কাউন্সিলররা আলোচনা করেন। পরে তা সর্বসম্মতভাবে পাশ হয়।

মধ‌্যাহ্নভোজের পর দ্বিতীয় অধিবেশনে দলের নতুন নাম ও নেতৃত্ব নির্বাচন করেন কাউন্সিলররা। সর্বসম্মতভাবে দলের নাম নির্ধারণ হয় ‘বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি (মার্কসবাদী)’।

দলের সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন নুরুল হাসান এবং সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন ইকবাল কবির জাহিদ। ১১ সদস্য বিশিষ্ট দলের নতুন কেন্দ্রীয় কমিটির নয়জনের নাম ঘোষণা করা হয়েছে সম্মেলনে। অন্যরা হলেন- মনোজ সাহা, জাকির হোসেন হবি, অনিল বিশ্বাস, মোফাজ্জেল হোসেন মঞ্জু, তুষার কান্তি দাশ, সৈয়দ মজনুর রহমান, তপন সাহা চৌধুরী। কেন্দ্রীয় কমিটির আরো দুজনকে পরে কো-অপট করা হবে।

সম্মেলনে কেন্দ্রীয় কমিটির পাশাপাশি ১১ সদস্য বিশিষ্ট বিকল্প কমিটি এবং ছয় সদস্য বিশিষ্ট সাংগঠনিক কমিটি গঠন করা হয়েছে। বিকল্প সদস্যরা হলেন- জিল্লুর রহমান ভিটু, নাজিম উদ্দিন, প্রফেসর ইসরারুল হক, গাজী আব্দুল হামিদ, শামসুর রহমান আক্তার, সিরাজুম মুনির, মুনিউর রহমান জিকো, নওশের আলী এবং কাজী ফিরোজ। এই পদে আরো দুজনকে পরে কো-অপট করা হবে।

সাংগঠনিক সদস্যরা হলেন- শহিদুল এনাম পল্লব, মোজাম্মেল হক, জাহাঙ্গীর আলম সবুজ, হাশেম আলী, আলাউদ্দিন আহাম্মেদ, সিরাজ আহমেদ।

সম্মেলনে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়- কেন্দ্রীয় কমিটি পরে সিদ্ধান্ত নেবে, প্রেসিডিয়াম না কি পলিটব্যুরো হবে। এর পর ওই কমিটি গঠন করবে কেন্দ্রীয় কমিটি।

নবনির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক ইকবাল কবির জাহিদ জানান, আগামী তিন মাসের মধ্যে কেন্দ্রীয় কমিটি দলের রাজনৈতিক ঘোষণা ও কর্মসূচি প্রণয়ন করবে।

তিনি বলেন, ‘এই সম্মেলনের ডাক ছিল- বহুধাবিভক্ত কমিউনিস্টদের ঐক্য ও বাম গণতান্ত্রিক বিকল্প গড়ে তোলা। সে কারণে ঐক্য প্রক্রিয়াকে এগিয়ে নেয়ার জন্যে কেন্দ্রীয়ভাবে পাঁচ সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। এই কমিটির নাম ঐক্য কমিটি।’

সম্মেলনের তাৎক্ষণিক প্রস্তাবনায় শ্রমজীবী, মেহনতি মানুষের মুক্তি সংগ্রামকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার ওপর গুরুত্ব আরোপ করে পার্টিকে প্রতিটি সেক্টরে জোরালোভাবে কাজ করতে হবে বলে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। চিনি শিল্প রক্ষায় সরকারের আশু হস্তক্ষেপ কামনার পাশাপাশি চিনিকল শ্রমিকদের আন্দোলনের সাথে সংহতি জানানো হয় সম্মেলন থেকে।

সরকার নির্ধারিত মূল্যে প্রকৃত কৃষকরা যাতে ধান ও চাল বিক্রি করতে পারে সে জন্যে কৃষকদের সংগঠিত করে আন্দোলন গড়ে তোলা, নসিমন-করিমন চালকদের ন্যায়সঙ্গত দাবির প্রতি একাত্মতা প্রকাশ এবং পেঁয়াজসহ দ্রব্যমূল্য জনগণের নাগালের মধ্যে রাখার দাবিতে দেশব্যাপী আন্দোলন গড়ে তোলারও সিদ্ধান্ত নেয়া হয় সম্মেলনে।


-->


সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক: আবু সুফিয়ান
চেয়ারম্যান: মুসলিমা সুফিয়ান

কল: 01723-980255,01919-972103
নিউজ রুম :01710-972103
ইমেল: Photonews24@yahoo.com

১২মধ্য বেগুনবাড়ি,তেজগাঁও শিল্প এলাকা,ঢাকা -১২০৮
ইমেল: shufian707@gmail.com