সোমবার , ৪ নভেম্বর ২০১৯
  • প্রচ্ছদ » খেলা » ব্যাঙ্গালুরুর হারের থেকে শিক্ষা নিয়েছে বাংলাদেশ: মুশফিকুর রহিম


ব্যাঙ্গালুরুর হারের থেকে শিক্ষা নিয়েছে বাংলাদেশ: মুশফিকুর রহিম




ফটো নিউজ ২৪ : 04/11/2019


-->

হঠাৎ করেই বাংলাদেশের ক্রিকেটে টালমাটাল পরিস্থিতি তৈরি হয়। ১১ দফা দাবিতে ক্রিকেটাররা আন্দোলনে নেমে পড়েন। অবস্থা দু’য়েকদিনে আরও ঘোলাটে হয়। পরে অবশ্য বাংলাদেশের ক্রিকেট কর্তারা দাবি মেনে ফেরান খেলোয়াড়দের। কিন্তু ফের ঝামেলার সৃষ্টি।

এবার তো জুয়াড়ির সঙ্গে কথা বলার বিষয় গোপন রাখার কারণে দেশের সবচেয়ে বড় তারকা সাকিব আল হাসানকে নিষিদ্ধ করে আইসিসি।

ভারতের মাটিতে পূর্ণাঙ্গ ক্রিকেট সফরের মাত্র কয়েকদিন আগের এই ঘটনাগুলো। এর সঙ্গে যোগ হয়, ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে এই সফর থেকে সরে দাঁড়ান দলের আরেক নির্ভরযোগ্য খেলোয়াড় তামিম ইকবাল।

তবে এত ঝামেলা শেষ করে টাইগারদের ভারত পাড়ি দিতেই হয়েছে। সঙ্গে এও মনে রাখতে হয়েছে, টিম ইন্ডিয়ার দেশে বাঘা বাঘা সব দলই গিয়ে কুপোকাত হয়েছে।

এতকিছু ছাপিয়ে রোববার তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টির প্রথমটিতে দিল্লি অরুন জেটলি স্টেডিয়ামে স্বাগতিকদের বিপক্ষে মাঠে নামে বাংলাদেশ। মাঠে নামার আগে লাল-সবুজদের পরিসংখ্যানের কথাও মাথায় রাখতে হয়েছে। কেননা সংক্ষিপ্ত এই ফরম্যাটে যে ভারতের বিপক্ষে আগে ৮টি ম্যাচ খেলেও কোনো জয় পাওয়া হয়নি।

তবে এ ম্যাচে সাকিব-তামিমের পর দলের সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য ব্যাটসম্যান হিসেবে ছিলেন মুশফিকুর রহিম। আর তার হাত ধরেই এলো ভারতের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টিতে প্রথম জয়। খেললেন ৪৩ বলে ৬০ রানের অন্যবদ্য এক ইনিংস। বাংলাদেশ জয় পায় ৭ উইকেটে। সিরিজে এগিয়ে ১-০তে। পরে মুশফিক জানালেন, ভারতের মাটিতে ভালো পারফরম্যান্সই ড্রেসিং রুম ও দেশে হাসি ফেরাবে।

মুশফিক বলেন, ‘আমার ১৫ বছরের ক্রিকেট ক্যারিয়ারে মধ্যে গত দুই-তিন সপ্তাহ সবচেয়ে কঠিন সময় পার করেছি। তবে আমি বাংলাদেশ ছাড়ার আগেই সাংবাদিকদের বলেছি ভারতের মাটিতে কয়েকটি জয়ই আমাদের সঠিক পথে নিয়ে আসবে। এটাই আমাদের দলের ও জাতির হাসি ফেরাবে।’

মাঠের বাইরের এত ঝামেলার মাঝেও বাংলাদেশের নতুন হেড কোচ রাসেল ডমিঙ্গো নিজেকে শান্ত রেখেছেন বলে মুশফিক তার প্রশংসা করেন। পাশাপাশি দলে তরুণদের মূল্যায়নটারও প্রসঙ্গ তুলে ধরেন।

তিনি বলেন, ‘আমরা এখানে আন্ডারডগ হিসেবে এসেছি। আমরা গত তিন সপ্তাহে যে ব্যাপারগুলোর মুখোমুখি হয়েছি, তাতে কোচের শান্ত ভূমিকার জন্য তার প্রতি আমি কৃতজ্ঞ। তিনি তরুণদের স্বাধীনতা ও আত্মবিশ্বাস দিয়েছেন।’

পরে মুশফিকের কাছে ২০১৬ বিশ্বকাপে ব্যাঙ্গালুরুর সেই ম্যাচটি নিয়ে জানতে চাওয়া হয়। যেখানে জয়ের খুব কাছে গিয়েও তিনি ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ অতি উল্লাস প্রকাশ করে ছক্কা হাঁকাতে গিয়ে আউট হয়ে যান। পরে বাংলাদেশ ভারতের কাছে এক রানে হেরে যায়।

মুশফিক যোগ করেন, ‘বড় ব্যাপার হচ্ছে এই পরিস্থিতি থেকে যে ম্যাচ জিতলাম, এটা মানুষ বেশিদিন মনে রাখবে না। তবে আমরা যদি এ ম্যাচটি হেরে যেতাম তবেই মানুষ অনকেদিন মনে রাখতো। আমরা সেই ম্যাচে (ব্যাঙ্গালুরু) দুই ওভার বাকি থাকতে আরও ভালো পজিশনে ছিলাম। তবে এখানে সেটি অনেক কঠিন।’

মুশফিকের মতে ব্যাঙ্গালুরুর হারের পরে বাংলাদেশ সেখান থেকে শিক্ষা নিয়েছে। আর বর্তমানে আগের থেকেও বেশি চাপ নিতে পারে।

‘আমরা ভারতের বিপক্ষে অনেকগুলো ম্যাচ খুব কাছে গিয়ে হেরেছি। পরে আমরা প্রতিশ্রুতি নিয়েছি, এমন পরিস্থিতি এলে আমরা আর হারতে চাই না। আমরা সেই মুহূর্তগুলোর পর শিক্ষা নিয়েছি। আমি রিয়াদ ভাইকে বলছিলাম বড় শট খেলার থেকে সিঙ্গেলস ও ডাবলস নিয়েই আমরা জিততে পারি।’


-->


সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক: আবু সুফিয়ান
চেয়ারম্যান: মুসলিমা সুফিয়ান

কল: 01723-980255,01919-972103
নিউজ রুম :01710-972103
ইমেল: Photonews24@yahoo.com

১২মধ্য বেগুনবাড়ি,তেজগাঁও শিল্প এলাকা,ঢাকা -১২০৮
ইমেল: shufian707@gmail.com