রবিবার, ২৫ অগাস্ট ২০১৯


আগুনে পুড়ছে বিশ্বের বৃহত্তম রেইন ফরেস্ট অ্যামাজন




ফটো নিউজ ২৪ : 22/08/2019


-->

কয়েক সপ্তাহ ধরে রেকর্ডসংখ্যক আগুনে পুড়ছে বিশ্বের বৃহত্তম রেইন ফরেস্ট অ্যামাজন।

ব্রাজিলের স্পেস রিসার্চ সেন্টার (আইএনপিএ) বলেছে, শুধু এ বছরেই অ্যামাজনে ৭২ হাজার ৮৪৩টি আগুন লাগার ঘটনা ঘটেছে, যা ২০১৮ সালের চেয়ে ৮৪ গুণ বেশি। শুধু বৃহস্পতিবার থেকেই ৯ হাজার ৫০০টি আগুনের ঘটনা রেকর্ড করা হয়েছে। বিবিসি।

আবহাওয়াবিদ এরিক হোলথাউস টুইটে বলেন, ‘ব্রাজিলের অর্ধেক আবৃত করে রাখা অ্যামাজন পুড়ছে। আমরা এখন জাতীয় জরুরি অবস্থায় রয়েছি।’

নাসার আকুয়া স্যাটেলাইটে ধরা পড়েছে, ১১ আগস্ট থেকে ১৩ আগস্ট পর্যন্ত ব্রাজিলের রোডোনিয়া, অ্যামাজোনাস ও মাতো গ্রোসো রেকর্ড পরিমাণ আগুনে পুড়ছে। অ্যামাজনের আগুনের ধোঁয়ার কারণে সোমবার ব্রাজিলের সাওপাওলো ব্ল্যাকআউটের কবলে পড়ে।

স্যাটেলাইট ছবিতে দেখা গেছে, ব্রাজিলের উত্তরাঞ্চলের শহর রেরামিয়া কালো ধোঁয়ায় ঢেকে গেছে।

এর পার্শ্ববর্তী শহর অ্যামাজোনাসের রাজধানী মানোস আগুনের কারণে শুক্রবার থেকে জরুরি পরিবেশ সতর্কতা জারি করেছে।

নাসা বলছে, কৃষক ফসলের জন্য জমি পরিষ্কার করার সময় অর্থাৎ শুষ্ক মৌসুমের শুরুতে জুলাই থেকে আগস্ট পর্যন্ত অ্যামাজনে সবচেয়ে বেশি আগুন লাগার ঘটনা ঘটে।

নাসা তাদের স্যাটেলাইটে অ্যামাজনে আগুনের ফলে সৃষ্ট ধোঁয়ার ছবি প্রকাশ করেছে। এতে দেখা গেছে, আগুনের কারণে বিশ্বের বৃহত্তম অরণ্য অ্যামাজনে সিও২ এর মাত্রা আশঙ্কাজনকভাবে বেড়েছে। এই বন ৩০ লাখেরও বেশি উদ্ভিদ ও প্রাণী প্রজাতি এবং ১০ লাখের বেশি আদিবাসীর আবাসস্থল।

সংরক্ষণবাদীরা প্রেসিডেন্ট জেইর বলসোনারোকে দোষারোপ করে বলেছেন, তিনি কাঠুরে এবং কৃষকদের জমি পরিষ্কার করতে উৎসাহিত করেছেন। আর এখান থেকেই আগুন ও ধোঁয়ার সূত্রপাত।

প্রেসিডেন্ট বলসোনারো অভিযোগ নাকচ করে বলেন, ‘এটি কৃষকদের জমি পরিষ্কারের সময়। এখন কৃষক আগুন দিয়ে পুড়িয়ে জঙ্গল পরিষ্কার করবে। জরিপ অস্বীকার করে বলেন, আইএনপিএ যে তথ্য দিয়েছে, সেটি সাধারণত শুস্ক মৌসুমে হয়ে থাকে।’


-->


সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক: আবু সুফিয়ান
চেয়ারম্যান: মুসলিমা সুফিয়ান

কল: 01723-980255,01919-972103
নিউজ রুম :01710-972103
ইমেল: Photonews24@yahoo.com

১২মধ্য বেগুনবাড়ি,তেজগাঁও শিল্প এলাকা,ঢাকা -১২০৮
ইমেল: shufian707@gmail.com