বুধবার , ২৬ জুন ২০১৯
  • প্রচ্ছদ » আন্তর্জাতিক » মাহমুদ আব্বাসের কাছে পদত্যাগপত্র জমা দিলেন ফিলিস্তিনের প্রধানমন্ত্রী রমি নেতৃত্বাধীন ঐক্য সরকার


মাহমুদ আব্বাসের কাছে পদত্যাগপত্র জমা দিলেন ফিলিস্তিনের প্রধানমন্ত্রী রমি নেতৃত্বাধীন ঐক্য সরকার




ফটো নিউজ ২৪ : 29/01/2019


-->

ফিলিস্তিনের প্রধানমন্ত্রী রমি আল-হামদাল্লাহ ও তার নেতৃত্বাধীন ঐক্য সরকার প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসের কাছে পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছে।

 

পশ্চিম তীরের রামাল্লায় মন্ত্রিসভার সাপ্তাহিক বৈঠকের পর মঙ্গলবার এ পদত্যাগের কথা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী রমি।

তবে নতুন সরকার গঠিত না হওয়া পর্যন্ত বর্তমান সরকারই দায়িত্ব পালন করবে বলে জানানো হয়েছে সরকারি এক বিবৃতিতে।

প্রেসিডেন্ট আব্বাস এখন আালাপ-আলোচনার পর নতুন সরকার ঘোষণা করতে পারেন বলে মনে করা হচ্ছে।

 

রামাল্লায় সরকারের পদত্যাগের এ ঘটনা গাজার হামাস শাসকদের সঙ্গে আব্বাসের ফাতাহ’র সম্প্রীতির প্রচেষ্টাকে সংশয়ের মুখে ঠেলে দিল বলেই মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

মাহমুদ আব্বাস এ বিষয়ে তাৎক্ষণিক কোনও মন্তব্য করেননি। তবে গত রোববার তার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ফাতাহ’র এক বৈঠকে বর্তমান সরকারের পরিবর্তে নতুন একটি সরকার গঠনের সুপারিশ করেছিল ফাতাহ সেন্ট্রাল কাউন্সিল।

হামাসের একজন কর্মকর্তা এর নিন্দা জানিয়ে বলেছেন,এ পদক্ষেপ দলটিকে ফিলিস্তিনের রাজনীতি থেকে দূরে সরিয়ে দেওয়া এবং একঘরে করে ফেলারই চেষ্টা।

প্রধানমন্ত্রী রমি হামদাল্লাহকে ক্ষমতা থেকে সরিয়ে ‘প্যালেস্টাইন লিবারেশন অর্গানাইজেশন’(পিএলও) এর ছোট দলগুলোর প্রতিনিধি এবং স্বতন্ত্রদের নিয়ে একটি নতুন সরকার চায় ফাতাহ সেনট্রাল কাউন্সিল।

রামাল্লায় রমির মন্ত্রিসভাকে বলা হয় ফিলিস্তিনের জাতীয় ঐক্যমতে্যর সরকার। কারণ, এ সরকার ২০১৪ সালে প্রতিষ্ঠা পেয়েছিল সংঘাতে লিপ্ত দুই দল ফাতাহ এবং হামাসের সমঝোতার মধ্য দিয়ে।

রমি ওই বছর সরকারের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর থেকে হামাসের সঙ্গে পশ্চিম তীরের ফাতাহ’র সম্প্রীতি প্রতিষ্ঠার প্রচেষ্টায়ও নেতৃত্ব দিয়ে এসেছেন।

গাজায় ২০০৭ সালে শাসনক্ষমতা নেয় ফিলিস্তিনের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলনের দল হামাস।

দু’বছর আগে ২০১৭ সালে হামাস এবং ফাতাহর মধ্যে একটি সম্প্রীতি চুক্তিও সাক্ষর হয়। ওই চুক্তি অনুযায়ী গাজাতেও আব্বাসের ফিলিস্তিন কর্তৃপক্ষের শাসন শুরু এবং মিশর-ইসরায়েল ক্রসিং এলাকার নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার পরিকল্পনা করা হয়।

কিন্তু ক্ষমতা ভাগাভাগি নিয়ে দুপক্ষের মধ্যে বনিবনা না হওয়ায় এবং ইসরায়েল নীতি নিয়ে মতবিভেদের কারণে চুক্তিটির বাস্তবায়ন ব্যাহত হচ্ছে।

 

হামাস-ফাতাহ’র মধ্যে সংকটের সুরাহা না হওয়ায় ফাতাহ নেতারা প্রধানমন্ত্রী রমির সরকারকে আর বহাল রাখার কোনো মানে হয় না বলেই মনে করছেন।

 

-এ


-->


সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক: আবু সুফিয়ান
চেয়ারম্যান: মুসলিমা সুফিয়ান

কল: 01723-980255,01919-972103
নিউজ রুম :01710-972103
ইমেল: [email protected]

১২মধ্য বেগুনবাড়ি,তেজগাঁও শিল্প এলাকা,ঢাকা -১২০৮
ইমেল: [email protected]