সোমবার , ২ সেপ্টেম্বর ২০১৯
  • প্রচ্ছদ » খেলা » রবি ফ্রাইলিঙ্কের দুর্দান্ত পারফরম্যান্সে আবারও জয় পেল চিটাগং ভাইকিংস


রবি ফ্রাইলিঙ্কের দুর্দান্ত পারফরম্যান্সে আবারও জয় পেল চিটাগং ভাইকিংস




ফটো নিউজ ২৪ : 21/01/2019


-->

রবি ফ্রাইলিঙ্কের দুর্দান্ত পারফরম্যান্সে আবারও জয় পেল চিটাগং ভাইকিংস।

সোমবার (২১ জানুয়ারি) বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে ঢাকা ডায়নামাইটসকে এক বল হাতে রেখেই ৩ উইকেটে হারায় চিটাগং ভাইকিংস।

এর আগেও ফ্রাইলিঙ্কের ব্যাট ও বলে দুর্দান্ত পারফরম্যান্সেই সুপার ওভারেও জয় পায় চিটাগং।

লক্ষ্যটা ১৪০ রানের। আর এই লক্ষ্যে খেলতে নেমে ইনিংসের দ্বিতীয় বলেই উইকেট হারায় চিটাগং ভাইকিংস।

দুই বল খেলে শূন্যরানে আউট হয়ে ফেরেন আফগান উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ শেহজাদ। আন্দ্রে রাসেলের বলে শুভাগত হোমের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন তিনি।

তবে এই ধাক্কা বেশ ভালোভাবেই সামাল দেন ক্যামেরন ডেলপোর্ট। পরপর দুটি ছক্কা ও একটি চার হাঁকান শুভাগত হোমের এক ওভারে। পরের ওভারেও রাসেলের বলে হাঁকান আরও দুটি চার।

কিন্তু সাকিব আল হাসানের মুখোমুখি হতে পারলেন না এক বলের বেশি। বল হাতে সাকিবের প্রথম বলেই বোল্ড হয়ে ফেরেন ডেলপোর্ট। তবে ফেরার আগে মাত্র ১২ বলে ৩০ রানের ঝকঝকে একটি ইনিংস খেলেন। যেখানে ছিল চারটি চার ও দুইটি ছক্কার মার।

নিজের করা দ্বিতীয় ওভারে সাকিব নেন নিজের দ্বিতীয় উইকেটটি। ইয়াসির আলীকে উইকেটের পেছনে কাজী নুরুল হাসান সোহানের হাতে ক্যাচে পরিণত করেন সাকিব। আউট হয়ে ফেরার আগে ১৭ বলে ১৫ রান করেন ইয়াসির।

ধারাবাহিকতা ভাঙেননি সাকিব। ব্যক্তিগত তৃতীয় ওভারে নেন তৃতীয় উইকেট। ওভারের প্রথম বলেই ফেরান ৩ বলে ২ রান করা দাসুন শানাকাকে। চিটাগংয়ের অধিনায়ক মুশফিকুর রহিমের চেষ্টাও বৃথা করে দেন ঢাকার ডানহাতি ফাস্ট বোলার রুবেল হোসেন। ২৩ বলে ২২ রান করা মুশফিককে সুনীল নারাইনের হাতে ক্যাচে পরিণত করেন তিনি।

বাদ যায়নি সাকিবের চতুর্থ ওভারও। নিজের কোটার শেষ ওভারের পঞ্চম ওভারে তুলে নেন ১১ বলে ৪ রান করা নাঈম হাসানকে। দুর্ভাগ্যজনকভাবে রান আউট হয়ে ফেরেন দলীয় সর্বোচ্চ ৩৩ রান করা মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। ডারুইস রাসোলির পাঠানো বলে রান আউট হয়ে ফেরার আগে ৩৯ বলে ৩৩ রান করে ফেরেন সৈকত। ম্যাচ অনেকটাই ঢাকার হাতে চলে গেলেও এক প্রকার ছিনিয়ে আনেন ফ্রাইলিঙ্ক। মাত্র ১০ বলে ২৫ রানের মহাগুরুত্বপূর্ণ এক ইনিংস খেলে দলকে এনে দেন ষষ্ঠ জয়। ফলে ৭ ম্যাচ খেলে ছয় জয় মুশফিকের দলের।

ঢাকার হয়ে একাই ৪ উইকেট তুলে নেন অধিনায়ক সাকিব। এছাড়াও একটি করে উইকেট নেন আন্দ্রে রাসেল ও রুবেল হোসেন।

এর আগে, চিটাগং ভাইকিংসের বোলারদের নিয়ন্ত্রিত বোলিং আর ব্যাটসম্যানদের মন্থর ব্যাটিংয়ে নির্ধারিত ২০ ওভারে শেষে ৯ উইকেট হারিয়ে ১৩৯ রান সংগ্রহ করে ঢাকা ডায়নামাইটস।

সোমবার (২১ জানুয়ারি) মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টসে জিতে ব্যাটিং বেছে নেওয়ার সিদ্ধান্ত বুমেরাং হয়ে আসে ঢাকা ডায়নামাইটসের জন্য। ইনিংসের প্রথম ওভারেই ওপেনার হারানো দিয়ে শুরু। এরপর ঢাকার ইনিংস এগিয়েছে খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে।

দলীয় শূন্য রানেই ওপেনার রনি তালুকদার চিটাগংয়ের পেস অলরাউন্ডার রোবি ফ্রাইলিঙ্কের বলে বোল্ড হয়ে ফেরেন। আরেক ওপেনার সুনীল নারাইনের ব্যাট থেকে আসে ৯ বলে ১৮ রান। তিনিও ফ্রাইলিঙ্কের বলে বোল্ড হয়ে ফেরেন।

বিপিএলের মাঝপথে ঢাকায় যোগ দেওয়া নতুন খেলোয়াড় হেইনো কুহন নিজের অভিষেক রাঙাতে ব্যর্থ হয়েছেন। আবু জায়েদের বলে বোল্ড হওয়ার আগে ২১ বল খেলে ৩ চারে ১৮ রান সংগ্রহ করেছেন এই তরুণ ব্যাটসম্যান। তার বিদায়ের পর কোনো রান যুক্ত না করেই বিদায় নেন ডরউইশ রাসোলিও।

৫৬ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে ফেলা দলকে টেনে নেওয়ার দায়িত্ব পড়ে অধিনায়ক সাকিব আল হাসানের ওপর। ৩৪ বলে ৩৪ রান করে তার সেই চেষ্টা অবশ্য একেবারে বিফলে যায়নি। ডেলপোর্টের বলে ইয়াসির আলীর হাতে ক্যাচ দিয়ে তিনি যখন বিদায় নেন দলের স্কোর তখন ৯৫/৫।

এরপর বলার মতো রান এসেছে শুধু নুরুল হাসান ও শুভাগত হোমের ব্যাট থেকে। ১৮ বলে ৫ চারে ২৭ রান করেছেন নুরুল আর ১৫ বলে ৩ চার ও ১ ছক্কায় ২৯ রান করেছেন শুভাগত।

বল হাতে ৪ ওভারে ২৫ রান খরচ করে ৩ উইকেট তুলে নিয়েছেন চিটাগংয়ের ডেলপোর্ট। ২টি করে উইকেট পেয়েছেন ফ্রাইলিঙ্ক ও আবু জায়েদ। অন্য উইকেটটি পেসার খালেদ আহমেদের।

 

-এ


-->


সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক: আবু সুফিয়ান
চেয়ারম্যান: মুসলিমা সুফিয়ান

কল: 01723-980255,01919-972103
নিউজ রুম :01710-972103
ইমেল: Photonews24@yahoo.com

১২মধ্য বেগুনবাড়ি,তেজগাঁও শিল্প এলাকা,ঢাকা -১২০৮
ইমেল: shufian707@gmail.com