মঙ্গলবার , ২৬ মার্চ ২০১৯


মেক্সিকো সীমান্ত বন্ধ করে দেয়ার হুমকি দিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প




ফটো নিউজ ২৪ : 29/12/2018


-->

মেক্সিকো সীমান্তে দেয়াল নির্মাণে প্রস্তাবিত তহবিলে সম্মতি না দিলে মেক্সিকো সীমান্ত বন্ধ করে দেয়ার হুমকি দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। অবৈধ অভিবাসীদের অনুপ্রবেশ বন্ধে মেক্সিকো সীমান্তে দেয়াল নির্মাণের জন্য এ তহবিল বরাদ্দ চেয়েছিলেন ট্রাম্প।

কিন্তু বিরোধী দল ডেমোক্রেটিক পার্টি এতে অনুমোদন না দেয়ায় প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পও প্রশাসনিক কার্যক্রম পরিচালনার জন্য অর্থ বরাদ্দের বিলে সই করেননি। ফলে প্রায় এক সপ্তাহ ধরে যুক্তরাষ্ট্রের প্রশাসনিক কার্যক্রমে আংশিক অচলাবস্থা বা শাটডাউন চলছে। খবর বিবিসি।

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প এক টুইটে বলেন, ‘হয় আমরা দেয়াল নির্মাণ করব অথবা আমরা সীমান্ত বন্ধ করে দেব।’ সীমান্ত বন্ধ করে দিতে প্রেসিডেন্টের হুমকির সত্যতা নিশ্চিত করে হোয়াইট হাউজের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, কংগ্রেসে আলোচনা স্থবির হয়ে পড়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টের ভারপ্রাপ্ত চিফ অব স্টাফ মিক মালভানিও নিশ্চিত করেছেন, ট্রাম্প প্রশাসন দক্ষিণাঞ্চলীয় সীমান্তটি বন্ধ করে দিতে ইচ্ছুক।

তিনি আরো জানিয়েছেন, কংগ্রেসের সঙ্গে আলোচনা ‘পুরোপুরি অচল হয়ে পড়েছে’ এবং ডেমোক্র্যাটরা সীমান্তের চেয়ে ন্যান্সি পেলোসিকে হাউজের স্পিকার হিসেবে দেখতেই বেশি আগ্রহী।

সরকার ও বিরোধী দলের এ দ্বন্দ্বের কারণে যুক্তরাষ্ট্রের প্রশাসনিক কার্যক্রমে অচলাবস্থা চলছে। এ অবস্থায় হাজার হাজার সরকারি কর্মীকে বিনা বেতনে ছুটি কাটাতে হচ্ছে অথবা বেতন কবে হবে, তা অজানা সত্ত্বেও কাজ করে যেতে হচ্ছে।

কংগ্রেসের উভয় কক্ষ বৃহস্পতিবার কয়েক মিনিটের জন্য বৈঠকে বসে, তবে অচলাবস্থা নিরসনে কোনো পদক্ষেপ সেখানে গৃহীত হয়নি। আইনসভাটির উচ্চকক্ষ সিনেট ও নিম্নকক্ষ হাউজের সদস্যরা আগামীকাল আবারো বৈঠক করবেন বলে জানা গেছে।

চলতি সপ্তাহের শেষের দিকে নবনির্বাচিত হাউজ সদস্যরা শপথ নেবেন। যেখানে গত মাসে অনুষ্ঠিত মধ্যবর্তী নির্বাচনের মাধ্যমে সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়েছে ডেমোক্র্যাটরা। তবে অল্প ব্যবধানে সংখ্যাগরিষ্ঠতা থাকার সুবাদে উচ্চকক্ষে সরকারি দল রিপাবলিকানদেরই আধিপত্য থাকবে।

গত অক্টোবরেও মেক্সিকোর সীমান্ত বন্ধ করে দেয়ার হুমকি দিয়েছিলেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। সে সময় শত শত অভিবাসনপ্রত্যাশীর কাফেলা অবৈধভাবে যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ করতে চাইলে লাতিন আমেরিকার দেশগুলোকে তাদের থামানোর নির্দেশ দেন ট্রাম্প, অন্যথায় যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণাঞ্চলীয় সীমান্ত বন্ধ করে দেয়ার হুমকি দেন তিনি। শুক্রবার তিনি এর পুনরাবৃত্তি করেছেন।

টুইটারে ট্রাম্প বলেন, ‘প্রগতিবিরোধী ডেমোক্র্যাটরা যদি আমাদের অর্থ না দেয়, তাহলে আমরা দক্ষিণের সীমান্ত চিরতরে বন্ধ করে দিতে বাধ্য হব।’

মেক্সিকো সীমান্তে দেয়াল নির্মাণ করতে ট্রাম্প মোট ৫০০ কোটি ডলার বরাদ্দ দাবি করেছেন।

তবে ডেমোক্র্যাট এমনকি খোদ সরকারি দলের কয়েকজন এতে আপত্তি জানিয়েছেন।

এদিকে ট্রাম্পের হুমকি সত্ত্বেও মধ্য আমেরিকান দেশগুলো থেকে কয়েক সপ্তাহ ধরে জড়ো হওয়া অভিবাসনপ্রত্যাশীরা ফিরে যাচ্ছেন না। তারা সীমান্তের ওপারে মেক্সিকোর অংশে অবস্থান নিয়েছেন। সঠিক প্রক্রিয়ায় যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ অনেক অনেক লম্বা সময়ের ব্যাপার দেখে অনেকে অবৈধভাবে সীমান্ত অতিক্রমের চেষ্টা করছেন এবং কেউ কেউ লাফিয়ে কাঁটাতারের বেড়া টপকে যাওয়ার চেষ্টা করছেন।

অভিবাসনপ্রত্যাশীদের সন্তানদের ইউএস কাস্টমস অ্যান্ড বর্ডার প্যাট্রলের এজেন্টদের হেফাজতে রাখা হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্র সরকারের জিম্মায় থেকে চলতি মাসেই গুয়াতেমালা থেকে আসা দুটি শিশু মারা গেছে।

 

-এ


-->


সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক: আবু সুফিয়ান
চেয়ারম্যান: মুসলিমা সুফিয়ান

কল: 01723-980255,01919-972103
নিউজ রুম :01710-972103
ইমেল: [email protected]

১২মধ্য বেগুনবাড়ি,তেজগাঁও শিল্প এলাকা,ঢাকা -১২০৮
ইমেল: [email protected]