রবিবার, ২৪ মার্চ ২০১৯


খুব সহজেই ঘরোয়া উপায়ে দূর করা যায় এই দুর্গন্ধ




ফটো নিউজ ২৪ : 09/12/2018


-->

সারা বছর মোজা না পরলেও শীতে মোজা পরতে বাধ্য হন অনেকেই। বাইরের ঠান্ডা আবহাওয়ায় শরীরকে গরম রাখতে মোজার ব্যবহার অনস্বীকার্য।

কিন্তু অনেকেরই মোজা পরলে পা ঘামে। মোজায় সারা দিন ভিজে চটচটে ভাব, এ দিকে ঘেমো গন্ধের চোটে জুতো খোলারও উপায় নেই। প্রতি দিন বাড়ি ফিরে মোজা খুললেই গন্ধের দায়ে টেকা দায় হয়ে ওঠে। পা ধুলেও এই গন্ধ সব সময় যায় না।

সারা বছর এমন সমস্যার মুখোমুখি হলেও, শীতে তুলনামূলক ভাবে পা ঘামে বেশি।

ঘাম জমা পায়ে খুব দ্রুত ব্যাকটিরিয়া ও ছত্রাক জন্মায়।

ফলে এর থেকে নানা রোগের সৃষ্টি হয়। কিন্তু জানেন কি, খুব সহজেই ঘরোয়া ক’টা উপায়ে এই দুর্গন্ধ দূর করা যায়।

মোজা পরার আগে এর মধ্যে যে কোনও একটি উপায় অবলম্বন করলেই পায়ে ঘামের সমস্যা কমবে। দেখে নিন সে সব উপায়-

লবন পানি: মোজা পরলেই পা ঘেমে যাওয়ার সমস্যা নিয়ে নাজেহাল যাঁরা, তাঁদের জন্য এই উপায় সেরা বিকল্প। বাড়ি থেকে বেরনোর আগে ঈষদুষ্ণ লবন পানি্তে পা ডুবিয়ে রাখুন মিনিট পনেরো। লবন ছত্রাক রোধ করতে সক্ষম।

ফলে পা ঘামার সমস্যাকে কমিয়ে দেয় অনেকটাই। একটু সময়সাপেক্ষ হলেও পা ঘামার সমস্যা দূর করতে লবন-পানির জুড়ি নেই।

বেকিং সোডা: এর অ্যাসিটিক উপাদান পায়ে ব্যাকটিরিয়া জন্মাতে দেয় না। ঘামকেও ঠেকিয়ে রাখে। তাই মোজা পরার আগে ভাল করে পা ধুয়ে শুকনো করে মুছে নিন। এ বার সামান্য বেকিং সোডা নিয়ে ঘষে নিন পায়ের পাতায়। জুতোর ভিতরেও কানিকটা বেকিং সোডা ছড়িয়ে নিতে পারেন।

তবে এর সঙ্গে মেনে চলুন কিছু অভ্যাস। প্রতি দিন ব্যবহার করুন পরিষ্কার করে কাচা মোজা। একই মোজা পরপর দু’দিন ব্যবহারের বদভ্যাস তাড়ান।

এতেও দুর্গন্ধ দূর না হলে জুতো বদলান। অনেক সময় কমদামি জুতোর চামড়া থেকেও দুর্গন্ধ ছড়ায় পায়ে।

 

-এ


-->


সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক: আবু সুফিয়ান
চেয়ারম্যান: মুসলিমা সুফিয়ান

কল: 01723-980255,01919-972103
নিউজ রুম :01710-972103
ইমেল: [email protected]

১২মধ্য বেগুনবাড়ি,তেজগাঁও শিল্প এলাকা,ঢাকা -১২০৮
ইমেল: [email protected]