বৃহস্পতিবার , ২৩ মে ২০১৯
  • প্রচ্ছদ » ভ্রমন » বাংলাদেশিদের ভ্রমণ সহজ করতে নিত্যনতুন উদ্যোগ অব্যাহত রেখেছে ভারত


বাংলাদেশিদের ভ্রমণ সহজ করতে নিত্যনতুন উদ্যোগ অব্যাহত রেখেছে ভারত




ফটো নিউজ ২৪ : 20/11/2018


-->

বাংলাদেশিদের ভ্রমণ সহজ করতে নিত্যনতুন উদ্যোগ অব্যাহত রেখেছে ভারত।

যে কোনো রুটের বৈধ ভিসা থাকলে হরিদাসপুর, বাই এয়ার ও ট্রেনে গেদে রুট দিয়ে ভারতে প্রবেশ করারে বাধা দূর হয়েছে আগেই।

তবে বাংলাদেশি পর্যটকদের দীর্ঘদিনের দাবি ছিল সব রুটের ব্যারিয়ার তুলে দেওয়ার।

 

এবার সেই রুট ব্যারিয়ার পুরোপুরি উঠে না গেলেও যোগ হচ্ছে নতুন ফিচার।

এখন থেকে ইচ্ছে করলে নির্দিষ্ট ফি দিয়ে ভিসা কেন্দ্রে পাসপোর্ট জমা করলেই যোগ হয়ে যাবে চাহিদমতো নতুন রুট।

মঙ্গলবার (২০ নভেম্বর) বিকেলে ঢাকার ভারতীয় হাইকমিশনের চ্যান্সারি হলে এক ব্রিফিংয়ে হাইকমিশনার হর্ষ বর্ধন শ্রিংলা বিষয়টি জানান-

 

এতোদিন সীমিত পরিসরে বৈধ ভিসায় নতুন রুট যুক্ত করার সুযোগ ছিল। সরাসরি হাইকমিশনে পাসপোর্ট ও আবেদন জমা দিয়ে নতুন রুট যুক্ত করা যেতো। এতে সময়ও লেগে যেতো অনেক বেশি। সর্বসাধারণের জন্য বিষয়টি সহজও ছিল না।

 

হাইকমিশনার জানান, এ সমস্যা দূর করতে নতুন উদ্যোগে যে কেউ বাংলাদেশের যে কোনো ভিসা অ্যাপ্লিকেশন সেন্টারে ৩শ টাকা ফি দিয়ে নতুন রুট যুক্ত করার আবেদন করতে পারবেন। ভিসার মতো ফর্ম পূরণ করে পাসপোর্ট জমা দিয়ে আবার নির্দিষ্ট দিনে পাসপোর্ট মিলবে। এতে একজন বৈধ ভিসা থাকাকালীন সময়ে যতোবার খুশি ততোবার নতুন রুট যুক্ত করতে পারবে।

 

আবেদনের তিন কার্যদিবসের মধ্যে পাসপোর্ট হাতে পাওয়া যাবে বলেও জানান তিনি।

সব আইভিএসিতে রুট অনুমোদনের আবেদন জমা দেওয়ার জন্য আলাদা কাউন্টার থাকবে। একজন আবেদনকারী বিদ্যমান ২৪টি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর এবং গেদে/হরিদাসপুর রেল ও সড়কপথ ছাড়াও অতিরিক্ত দু’টি রুটের জন্য আবেদন করতে পারবেন।

ভারতীয় হাইকমিশন ও ভারতীয় ভিসা আবেদন কেন্দ্রের ওয়েবসাইটে-

(https://www.hcidhaka.gov.in/pdf/endorsementofportapplicationform.pdf ও
http://www.ivacbd.com/Other-Forms) আবেদন ফর্ম পাওয়া যাবে। ভারতীয় হাইকমিশনে আর আবেদন জমা নেওয়া হবে না।

যেমন, যদি কারো আগরতলা দিয়ে বৈধ ভিসা থাকে আর তিনি যদি দার্জিলিং যেতে চান তাহলে তিনি পঞ্চগড়ের ফুলবাড়ি কিংবা বুড়িমারি দিয়ে নতুন রুট যুক্ত করার আবেদন করতে পারবেন। পারমিশন মিললে ঢুকতে কিংবা বেরুতে পারবেন নতুন রুট দিয়েও। কেউ চাইলে ডাউকি দিয়ে ঢুকে ফুলবাড়ি দিয়ে বের হওয়ার আবেদনও করতে পারবেন। আবার নতুন ভিসার সময়ও এক রুট দিয়ে ঢুকে আরেক রুট দিয়ে বের হওয়ার আবেদন করা যাবে।

 

ভারতে ঢোকার পোর্টগুলো সব কেন্দ্রীয় সরকারের অধীনে না থাকা, সব জায়গায় ইন্টিগ্রেডেট চেকপোস্ট না থাকা ও রাজ্য সরকারের অধীনে থাকায় সব রুট এক ভিসায় উন্মুক্ত করা সম্ভব হচ্ছে না বলেও জানান হাইকমিশনার।

নতুন এ বাংলাদেশি পর্যটকদের দীর্ঘদিনের চাহিদা পূরণ হচ্ছে।

 

-এ


-->


সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক: আবু সুফিয়ান
চেয়ারম্যান: মুসলিমা সুফিয়ান

কল: 01723-980255,01919-972103
নিউজ রুম :01710-972103
ইমেল: Photonews24@yahoo.com

১২মধ্য বেগুনবাড়ি,তেজগাঁও শিল্প এলাকা,ঢাকা -১২০৮
ইমেল: shufian707@gmail.com