বৃহস্পতিবার , ১৫ নভেম্বর ২০১৮


খালেদা জিয়ার আবেদন খারিজ




ফটো নিউজ ২৪ : 29/10/2018


-->

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার অনুপস্থিতিতে বিচার চলবে বলে হাইকোর্টের দেওয়া আদেশ স্থগিত করেনি আপিল বিভাগ।

এর আগে খালেদা জিয়ার অনুপস্থিতিতে বিচার চলবে বলে বিশেষ জজ আদালত আদেশ দিলে তা স্থগিত চেয়ে আবেদন করেছিলেন খালেদা জিয়া।

২৯ অক্টোবর, সোমবার সকালে খালেদা জিয়ার অাবেদন খারিজ করে দেন প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন সাত বিচারপতির আপিল বেঞ্চ।

 

এ আদেশের ফলে এ মামলায় নিম্ন আদালতে খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে চলমান মামলার কার্যক্রম চলতে বাধা রইল না।

অর্থাৎ সোমবার এ মামলার রায় ঘোষণা করা যাবে এমনটিই বলছেন সংশ্লিষ্ট আইনজীবীরা।

 

দুদকের আইনজীবী মোশাররফ হোসেন কাজল সাংবাদিকদের বলেন, ‘আপিল বিভাগের এ আদেশের ফলে খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলার রায় ঘোষণা করতে বাধা রইল না।’

সোমবার খালেদার পক্ষে আদালতে উপস্থিত ছিলেন অ্যাডভোকেট এ জে মোহাম্মদ আলী ও অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন। অপরদিকে দুদকের পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট খুরশীদ আলম খান।

গতকাল ২৮ অক্টোবর, রবিবার এ বিষয়ে খালেদা জিয়ার করা আবেদনের শুনানি করে আপিল বিভাগ আদেশের জন্য সোমবার দিন নির্ধারণ করে রাখেন। আদেশের বিষয়টি প্রিয়.কমকে জানান খালেদা জিয়ার আইনজীবী জয়নুল অাবেদীন।

 

 

রবিবার আদালতে খালেদার পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট এজে মোহাম্মদ আলী।

অপরদিকে, দুর্নীতি দমন কমিশনের পক্ষে আইনজীবী খুরশিদ আলম খান। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যার্টনি জেনারেল মাহবুবে আলম।

২৭ অক্টোবর আপিল আবেদন করেছিলেন খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা। এ বিষয়ে আপিল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে শুনানির জন্য আজ (২৮ অক্টোবর) রবিবার দিন ধার্য করেছিলেন চেম্বার জজ আদালত।

২০ সেপ্টেম্বর জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় খালেদা জিয়া আদালতে না আসায় তার অনুপস্থিতিতে বিচার চলবে বলে ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৫ এর বিচারক ড. আখতারুজ্জামান আদেশ দেন।

আদেশে আদালত বলেন, ‘খালেদা জিয়া আদালতে হাজির হয়ে ৫ সেপ্টেম্বর বলেছেন, তিনি বারবার আদালতে আসতে পারবেন না।

এরপর ১২ ও ১৩ সেপ্টেম্বর এবং আজও খালেদা জিয়া কারাগার কর্তৃপক্ষকে বলেছেন, তিনি আদালতে আসতে পারবেন না। অর্থাৎ আদালতের কাছে প্রতীয়মান হয় যে খালেদা জিয়া আদালতে আসতে অনিচ্ছুক।’

‘অথচ মামলার দুই আসামি প্রতিদিন হাজির হচ্ছেন। কিন্তু গত ফেব্রুয়ারি থেকে খালেদা জিয়া আদালতে হাজির হননি। এমন অবস্থায় ন্যায়বিচারের স্বার্থে খালেদা জিয়াকে ব্যক্তিগত হাজিরা থেকে অব্যাহতি দিয়ে তাকে জামিনে রেখে বিচার চলবে।’

২৭ সেপ্টেম্বর জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়া আদালতে না আসায় তার অনুপস্থিতিতে বিচার চলবে বলে বিশেষ জজ আদালত যে আদেশ দেন তার বিরুদ্ধে হাইকোর্টে রিভিশন আবেদন করা হয়। সে রিভিশন আবেদন ১৪ অক্টোবর খারিজ করে দেন হাইকোর্ট।

এরপর ওই খারিজ আদেশের বিরুদ্ধে বৃহস্পতিবার (২৫ অক্টোবর) চেম্বার আদালতে আপিল আবেদন করে খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা।

 

-এ


-->


সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক: আবু সুফিয়ান
চেয়ারম্যান: মুসলিমা সুফিয়ান

কল: 01723-980255,01919-972103
নিউজ রুম :01710-972103
ইমেল: [email protected]

১২মধ্য বেগুনবাড়ি,তেজগাঁও শিল্প এলাকা,ঢাকা -১২০৮
ইমেল: [email protected]