বৃহস্পতিবার , ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮


আজ ভয়াল ৯/১১ হামলা দিবস




ফটো নিউজ ২৪ : 11/09/2018


-->

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : আজ ভয়াল ১১ সেপ্টেম্বর। ১৭ বছর পূর্বে ২০০১ সালের আজকের দিনে আজকের দিনে ভয়াবহ বিমান হামলায় ধ্বংস হয়ে গিয়েছিলো নিউইয়র্কের ম্যানহাটনে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে থাকা ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারের দুটি ভবনই। এছাড়াও আরেকটি বিমান হামলা চালানো হয় দেশটির প্রতিরক্ষা দপতর পেন্টাগনে। আরেকটি বিমান বিদ্ধস্ত হয় পেনিসেলভেনিয়ায়। এই ঘটনায় ১৯ হামলাকারী সহ নিহত হয় ২৯৯৬ জন। এছাড়াও যুক্তরাষ্ট্র সহ সারা বিশ্বকে মেনে নিতে হয় বিপুল অর্থনৈতিক ক্ষতি।
এই ঘটনায় যুক্তরাষ্ট্রের ইন্স্যুরেন্স খাত পড়েছিলো ভয়াবহ ক্ষতির মুখে। এটি ছিলো মার্কিন ইতিহাসের সবচেয়ে বড় ইন্স্যুরেন্স বিপর্যয় ‘হ্যারিকেন অ্যান্ড্রু’র চাইতেও দেড় গুণ বড়। এর মধ্যে রয়েছে ১১০০ কোটি ডলারের বাণিজ্য প্রতিবন্ধকতা, স্থাবর সম্পত্তি ৯৬০ কোটি ডলার, ব্যাবসার দায় ৭৫০ কোটি ডলার, কর্মীদের ক্ষতিপুরণ ১৮০ কোটি ডলার এবং অন্য খাতে ২৫০ কোটি ডলার। বার্কশায়ার হাথওয়ে, লয়েডস, সুইস রে, মিউনিখ রে’র মতো বড় কোম্পানিগুলো পড়ে নিজেদের ইতিহাসের সবচেয়ে বড় ক্ষতিতে। প্রতিটি কোম্পানির গড় লোকসান ছিলো ২০০ কোটি ডলার। বেশীরভাগ কোম্পানির শেয়ারদর এসময় ১০ শতাংশ হ্রাস পায়।

সুবিশাল ক্ষতি হয় বিমান পরিসেবা খাতেরও। যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডার বেশকিছু স্থানের বিমান চলাচল এসময় বন্ধ থাকে বেশ অনেকদিন। এই হামলায় ব্যবহৃত হয়েছিলো ইউনাইটেড এয়ারওয়েজ এবং আমেরিকান এয়ারওয়েজের ৪টি বিমান। তারা এই দুই বিমানের যাত্রীদের প্রতিটি পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দেয়। এছাড়াও বুক করা টিকেট ফেরত দিতে হওয়ায় হয়েছিলো বিপুল অর্থনৈতিক ক্ষতি। পরবর্তীতে পুরো বিমান শিল্পকে টিকিয়ে রাখতে কেন্দ্রীয় সরকার ১ হাজার কোটি ডলার প্যাকেজ ঘোষণা করে।
এসময় নিউইয়র্কের পর্যটন শিল্প প্রায় ধ্বংসের মুখে চলে যায়। এর পূর্বে এই খাতে শহরটিতে আড়াই লাখ মানুষ কাজ করতো এবং আয় হতো প্রতিবছর আড়াই হাজার কোটি ডলার। হোটেল ব্যবসা ৪০ শতাংশ হ্রাস পায়। এছাড়াও ৩ হাজার কর্মী চাকরিচুত্য হন। এসময় শেয়ারবাজারেও ব্যপক ক্ষয়ক্ষতি হয়। হামলার দিন দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর প্রথমবারের মতো বন্ধ হয়ে যায় নিউইয়র্ক স্টক এক্সচেঞ্জের লেনদেন।
১১ সেপ্টেম্বর ২০০১ সালে সকাল বেলায় কর্মব্যস্ত হতে শুরু করেছিলো নিউইয়র্ক শহর। স্থানীয় সময় সকাল ৮টা ৪৬ মিনিটে প্রথম বিমানটি আঘাত হানে ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারের দক্ষিণ টাওয়ারে। এর ১ ঘন্টা ৪২ মিনিট পর সকাল ১০টা ২৮এ ২য় বিমানটি উত্তর টাওয়ারে আঘাত হানে। দুটি ভবনই পরে ধ্বসে পড়ে।
এই ঘটনায় পুরো বিশ্ব চিরদিনের জন্য বদলে যায়। এই হামলায় দায়ী করা হয় আল-কায়েদা নেতা ওসামা বিন লাদেনকে। লাদেনকে গ্রেফতার করতে আফগানিস্তানে হামলা চালায় যুক্তরাষ্ট্র নেতৃত্বাধীন জোট। সে যুদ্ধ এখনও শেষ হয়নি। এই ঘটনার প্রায় ১০ বছর পর ২০১১ সালের ১০ মে পাকিস্তানের আবোটাবাদে ডেল্টা ফোর্সের একটি বিশেষ দলের হামলায় নিহত হন ওসামা বিন লাদেন।

— আর


-->


সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক: আবু সুফিয়ান
চেয়ারম্যান: মুসলিমা সুফিয়ান

কল: 01723-980255,01919-972103
নিউজ রুম :01710-972103
ইমেল: [email protected]

১২মধ্য বেগুনবাড়ি,তেজগাঁও শিল্প এলাকা,ঢাকা -১২০৮
ইমেল: [email protected]