শনিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৮


‘ইতিহাসের বৃহত্তম সক্রিয় দাবানলে’ ক্যালিফোর্নিয়া




ফটো নিউজ ২৪ : 07/08/2018


-->

‘মেনডোসিনো কমপ্লেক্স ফায়ার’ নামে যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়াজুড়ে বিস্তৃত যমজ দাবানলকে কর্মকর্তারা অঙ্গরাজ্যটির ‘ইতিহাসের বৃহত্তম সক্রিয় দাবানল’ হিসেবে অভিহিত করেছেন।

দ্রুতগতিতে ছড়িয়ে পড়া আগুন সোমবার পর্যন্ত দুই লাখ ৮৩ হাজার একর জমি পুড়িয়ে দিয়েছে; দগ্ধ এলাকার আকৃতি লস এঞ্জেলেসের প্রায় সমান বলে জানিয়েছে বিবিসি।

প্রচণ্ড গরম, তীব্র বাতাস ও কম আর্দ্রতার মধ্যেও দমকলকর্মীরা অঙ্গরাজ্যের ১৬টি বড় ধরনের অগ্নিকাণ্ড নিয়ন্ত্রণে কাজ করে যাচ্ছে।

ক্যালিফোর্নিয়ার উত্তরাঞ্চলীয় ‘কার ফায়ার’ নামে অভিহিত দাবানলে অন্তত সাতজনের মৃত্যুরও খবর দিয়েছে স্থানীয় গণমাধ্যমগুলো।

 

১৪ হাজারেরও বেশি দমকল কর্মীর পাশাপাশি কয়েকশ মার্কিন সেনা রাজ্যজুড়ে বিস্তৃত হতে থাকা ডজনেরও ওপর অগ্নিকাণ্ড নিয়ন্ত্রণে হিমশিম খাচ্ছেন।

পরিস্থিতির দ্রুত উন্নতি হবে না বলে সতর্ক করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় আবহাওয়া বিভাগের কর্মকর্তা ব্রায়ান হারলে।

কোনো কোনো এলাকার তাপমাত্রা সর্বোচ্চ ৪৩ ডিগ্রি সেলসিয়াসে পৌঁছাতে পারে বলেও পূর্বাভাসে সতর্ক করা হয়েছে।

কাছাকাছি এলাকায় দেখা দেওয়া যমজ দাবানল ‘মেনডোসিনো ফায়ার কমপ্লেক্স’ গত বছরের ‘থমাস ফায়ারকে’ টপকে ক্যালিফোর্নিয়ার ইতিহাসের সবচেয়ে বৃহত্তম দাবানল হিসেবে দেখা দিয়েছে বলে মার্কিন এ অঙ্গরাজ্যটির কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

এবারের দাবানলকে ‘অত্যন্ত দ্রুতগতির, অত্যন্ত আক্রমণাত্মক, অত্যন্ত বিপজ্জনক’ হিসেবে অভিহিত করেছেন ক্যালিফোর্নিয়ার বনায়ন ও অগ্নিকাণ্ড সুরক্ষা বিভাগের উপপ্রধান স্কট ম্যাকলেন।

 

“দেখুন কত বড় হয়েছে এটি, তাও মাত্র কয়েক দিনের মধ্যেই। দেখুন কত দ্রুত এই মেনডোসিনো কমপ্লেস্ক র‌্যাঙ্কিংয়ে তরতরিয়ে উঠছে। এটি ঘটার কথা ছিল না, এটি আসলেই ঘটার কথা ছিল না,” বলেছেন তিনি।

ধ্বংসাত্মক এ দাবানলকে পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আনতে আরও সপ্তাহখানেক সময় লেগে যেতে পারে বলে আশঙ্কা কর্তৃপক্ষের।

গত দশ বছরের মধ্যে এবারের ‘দাবানল ঋতুর’ শুরুই সবচেয়ে বাজে বলেও মনে করেছেন বিশেষজ্ঞরা।

এর পেছনে ২০১২-১৭ পর্যন্ত ভয়াবহ খরায় বিপুল পরিমাণ গাছ-গাছড়ার মরে যাওয়াও অন্যতম কারণ বলে মনে করছেন তারা।

 

ক্যালিফোর্নিয়ার গভর্নর জেরি ব্রাউন গত বছরের ডিসেম্বরে জলবায়ু পরিবর্তনজনিত কারণে হওয়া ধ্বংসাত্মক দাবানলকে ‘নতুন বাস্তবতা’ হিসেবে অ্যাখ্যা দিয়েছিলেন।

সাম্প্রতিক দিনগুলোতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ক্যালিফোর্নিয়ার পরিবেশ আইন ও অঙ্গরাজ্যটির গভর্নরের কড়া সমালোচনা করে আসছিলেন।

সোমবারও টুইটারে তিনি বলেছেন, পানির গতিমুখ প্রশান্ত মহাসাগরের দিকে সরাতে ক্যালিফোর্নিয়ার নীতির কারণেই দাবানল ‘বিবর্ধিত ও পরিস্থিতি খারাপ হচ্ছে’।

 

মার্কিন গণমাধ্যমে দেওয়া প্রতিক্রিয়ায় ট্রাম্পের এ বক্তব্যকে খারিজ করে দিয়ে ক্যালিফোর্নিয়ার দমকলবাহিনীর উপপ্রধান ম্যাকলেন দাবানল মোকাবিলায় ‘পর্যাপ্ত পানি’ মজুদ আছে বলেও জানিয়েছেন।

 

“পরিবর্তিত জলবায়ুই চলতি বছর ও গতবছরের আগুনকে এতখানি বাজে ও ধ্বংসাত্মক করেছে,” টাইম ম্যাগাজিনকে দেওয়া মন্তব্যে এমনটাই বলেছেন এ কর্মকর্তা।

 

-এ


-->


সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক: আবু সুফিয়ান
চেয়ারম্যান: মুসলিমা সুফিয়ান

কল: 01723-980255,01919-972103
নিউজ রুম :01710-972103
ইমেল: [email protected]

১২মধ্য বেগুনবাড়ি,তেজগাঁও শিল্প এলাকা,ঢাকা -১২০৮
ইমেল: [email protected]