শনিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮


ফিলিস্তিনি বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে ইসরায়েলি বাহিনীর সংঘর্ষ অব্যাহত




ফটো নিউজ ২৪ : 14/04/2018


-->

গাজা সীমান্তে ফিলিস্তিনি বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে ইসরায়েলি বাহিনীর সংঘর্ষ অব্যাহত রয়েছে।

দুই সপ্তাহ ধরে চলা এই বিক্ষোভ ও সংঘর্ষে এরই মধ্যে ৩০ জনের বেশি নিহত হয়েছেন, আহতের সংখ্যা ছাড়িয়ে গেছে কয়েকশ।

 

ইসরায়েলি বাহিনীর গুলিতে শুক্রবারও ২৮ বছর বয়সী এক যুবক নিহত হয়েছে বলে ফিলিস্তিনি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে জানিয়েছে বিবিসি।

গাজার পূর্ব সীমান্তে ইসরায়েলি নিরাপত্তা রক্ষীদের গুলিতে ইসলাম হারজেল্লাহ নামে ওই যুবক আহত হয়েছিলেন।

 

পরে হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানেই তার মৃত্যু হয়।

তেল আবিব জানিয়েছে, অন্তত ১০ হাজার বিক্ষোভকারী দাঙ্গা বাধানোর চেষ্টা করার পর তাদের নিরাপত্তা রক্ষীরা গুলি ছুড়েছে। বিক্ষোভকারীদের অনেকেই বিস্ফোরক ও বোমা দিয়ে সীমান্ত বেষ্টনি ভেঙে ফেলারও চেষ্টা করেছিল।

 

 

ইসরায়েলের সামরিক বাহিনী হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছে, বেষ্টনি ভেঙে কাউকেই ভেতরে প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না।

যারা এ ধরনের চেষ্টা করবে তারা নিজেদের জীবনই বিপন্ন করবে বলে সতর্ক করেছেন ইসরায়েলের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী আভিগদর লিবেরমেন।

ইসরায়েলের ‘শক্ত প্রতিরোধের’ কারণে বিক্ষোভকারীদের মনোবল নিস্তেজ হয়ে আসছে এবং দিন দিন তাদের সংখ্যা কমে আসছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

ধারাবাহিক এ সংঘর্ষে নিন্দা জানিয়ে জাতিসংঘ গত সপ্তাহেই বিবদমান পক্ষগুলোকে ‘সর্বোচ্চ সংযম প্রদর্শনের’ অনুরোধ জানিয়েছিল।

 

 

১৯৪৮ সালে শরণার্থী হওয়া লাখ লাখ মানুষকে ইসরায়েলের দখলে থাকা এলাকায় ফিরতে বাধা দেওয়ার প্রতিবাদে সীমান্ত বরাবর ‘গ্রেট মার্চ অব রিটার্ন’ নামের এ বিক্ষোভের ডাক দেয় হামাসসহ বিভিন্ন সংগঠন।

শুরুর দিন হিসেবে বেছে নেওয়া হয় ৩০ মার্চকে;

১৯৭৬ সালের এই দিনে ভূমি দখলের প্রতিবাদ জানাতে গিয়ে ইসরায়েলি নিরাপত্তা বাহিনীর হাতে ছয় বিক্ষোভকারী নিহত হন।

ভূমি থেকে উচ্ছেদ হওয়ার ৭০তম বার্ষিকীতে আগামী ১৫ মে এ কর্মসূচি শেষ হওয়ার নির্ধারিত তারিখ।

 

ফিলিস্তিনিদের দাবি, শরণার্থী হওয়া পরিবারগুলোকে তাদের ভূমিতে ফিরতে দিতে হবে।

 

অন্যদিকে ইসরায়েল বলছে, হামলার দূরভিসন্ধি থেকেই হামাস এ বিক্ষোভের ফন্দি এঁটেছে।

ইসরায়েলের শুক্রবারের হামলাতে দুই সাংবাদিকও আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে ফিলিস্তিনি জার্নালিস্ট..।

৬ এপ্রিলের সংঘর্ষেও এক ফিলিস্তিনি আলোকচিত্রী নিহত হয়েছিলেন। ইসরায়েল বলেছে, তারা ওই ঘটনার তদন্ত করে দেখবে।

 

-এ


-->


সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক: আবু সুফিয়ান
চেয়ারম্যান: মুসলিমা সুফিয়ান

কল: 01723-980255,01919-972103
নিউজ রুম :01710-972103
ইমেল: [email protected]

১২মধ্য বেগুনবাড়ি,তেজগাঁও শিল্প এলাকা,ঢাকা -১২০৮
ইমেল: [email protected]