শুক্রবার, ৩ জুলাই ২০২০
  • প্রচ্ছদ » ভ্রমন » ব্যক্তিগত গাড়ি নিয়ে বেড়াতে পারবেন ভুটান, ভারত ও নেপালে!


ব্যক্তিগত গাড়ি নিয়ে বেড়াতে পারবেন ভুটান, ভারত ও নেপালে!




ফটো নিউজ ২৪ : 29/11/2017


-->

roadtrip-inside photonews24

ভারত, নেপাল, ভুটান বাংলাদেশী পর্যটকদের ভ্রমণ তালিকায় থাকা প্রথম সারির দেশ এগুলো।

ভারত তো আমাদের পাশেরই রাষ্ট্র আর নেপাল, ভুটানের সাথে দূরত্ব খুবই কম।

 

অপূর্ব সুন্দর দেশগুলোকে দেখতে যেন মনটা অস্থির হয়ে থাকে প্রত্যেক ভ্রমণকারীরই। কিন্তু কাঁটাতারে সীমানা বিভক্ত।

 

তাই চাইলেই যাওয়া যায় না। সরাসরি বিমানে যাওয়া ব্যায়বহুল।

স্থলপথে সরাসরি শুধু ভারত যাওয়া যায়, তবু সব পোর্টে যাতায়াত করতে পারেন না ভ্রমণকারীরা।

একমাত্র হরিদাসপুর/গেদে পোর্ট ছাড়া সরাসরি কোনো যান ব্যবস্থাও নেই। ভ্রমণ তাই সখের চেয়ে অনেক বেশি মানিব্যাগের জটিল অংক!

 
তবে পর্যটনকে সহজ করতে অনেক দিন যাবতই নানান আলোচনার মধ্য দিয়ে যাচ্ছে এই দেশগুলোর সরকার।

 

এই সকল আলোচনাকে সফল করতেই বিবিআইএন চুক্তি।

এই চুক্তি অনুযায়ী বাংলাদেশ, ভুটান, ভারিত ও নেপালের মধ্যে চলাচল করতে পারবে ব্যক্তিগত গাড়ি, যাত্রীবাহী পরিবহন ও পণ্য বা মালামালবাহী ভারি যানবাহন।

এমনটিই জানিয়েছেন আমাদের সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

 
জানা যায়, এরই মধ্যে ভারত, বাংলাদেশ ও নেপাল চুক্তিটিতে প্রাথমিক সমর্থন দিয়েছে।

ভুটানের সমর্থনের অপেক্ষা।

চার দেশের অনুসমর্থন নিশ্চিত হলে চুক্তিটি বাস্তবায়ন করা শুরু হবে।

গত ২১ নভেম্বর সংসদ অধিবেশনে প্রশ্নোত্তর পর্বে সংসদ সদস্য এম এ মালেকের লিখিত প্রশ্নের জবাবে এমনটাই বলেন মন্ত্রী।

 

photonews24

 
দীর্ঘদিন যাবত সড়ক এবং রেলপথে ভারতসহ, নেপাল, ভুটান গমনের প্রসঙ্গটি আলোচিত হয়ে আসছে।

স্থলপথে যাতায়াতের এই সুবিধা সৃষ্টি হলে কেবল বাংলাদেশের পর্যটক এসব দেশে সহজে ভ্রমণে যেতে পারবেন তা-ই নয়, এসব দেশ থেকেও ভ্রমণকারীরা বাংলাদেশের অপূর্ব অঞ্চলগুলো ভ্রমণে আসতে পারবেন।

বিমান খুবই ব্যায়বহুল। স্থলপথে ভুটান বা নেপাল গমনে ভারতের ট্রানজিট ভিসার প্রয়োজন হয় আর অনেক ভেঙে ভেঙে যেতে হয়।

 
তবে মহাসড়কে এই বিদেশ যাত্রা আপাত সুখবর মনে হলেও জানা যায়নি এর সাথে সম্পর্কিত ভিসা এবং ট্যাক্সের প্রক্রিয়াটি কেমন হবে।

ব্যক্তিগত গাড়ি ব্যক্তিগত সম্পত্তির আওতায় পড়ে। এটি নিয়ে ভিন দেশে যাওয়ার ক্ষেত্রে কি কি নিয়ম নীতি থাকবে তাও পরিষ্কার নয়।

এক্ষেত্রে ট্যাক্স ও অন্যান্য জটিলতা যদি এখনকার তুলনায় ব্যয়সাধ্য ও ঝামেলাপূর্ণ হয় তাহলে ভ্রমণকারীদের দশা একই থেকে যাবে সন্দেহ নেই।

 

এর সবকিছুই জানা যাবে চুক্তি বাস্তবায়ন শুরু হলে। ততদিন পর্যন্ত অপেক্ষা করা ছাড়া উপায় নেই।

 

-এ


-->


সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক: আবু সুফিয়ান
চেয়ারম্যান: মুসলিমা সুফিয়ান

কল: 01723-980255,01919-972103
নিউজ রুম :01710-972103
ইমেল: Photonews24@yahoo.com

১২মধ্য বেগুনবাড়ি,তেজগাঁও শিল্প এলাকা,ঢাকা -১২০৮
ইমেল: shufian707@gmail.com