শুক্রবার, ৩ জুলাই ২০২০
  • প্রচ্ছদ » ভ্রমন » বর্তমান সময়ে ব্যাকপ্যাকিং জনপ্রিয় একটি শব্দে পরিণত হয়েছে


বর্তমান সময়ে ব্যাকপ্যাকিং জনপ্রিয় একটি শব্দে পরিণত হয়েছে




ফটো নিউজ ২৪ : 21/05/2017


-->

ফটোনিউজ ২৪ ডট কম

আসিফ সুফিয়ান – বর্তমান সময়ে ব্যাকপ্যাকিং জনপ্রিয় একটা শব্দে পরিণত হয়েছে।

কিন্তু আসলে এই কথাটার মানে কি?

কাঁধে একটা ব্যাগ ঝুলিয়ে বের হয়ে গেলেই সেটাকে ব্যাকপ্যাকিং বলা যায়?

নাকি আর ভেতরে আরও কিছু আছে?

আরবান ডিকশনারির মতে, “কাঁধে একটা ব্যাগ ঝুলিয়ে নতুন কোন অভিজ্ঞতার সন্ধানে বের হয়ে যাওয়া, যেটা সাধারণত তরুণরাই করে থাকে, তবে সব বয়সের মানুষকে কম বেশি এতে অংশ নিতে দেখা গেছে।”

সুতরাং এক কথায় এর মানে দাঁড়াতে পারে, কাঁধে একটা ব্যাগ নিয়ে এডভেঞ্চার করতে বেড়িয়ে যাওয়া। আরও বিস্তারিত ভাবে বলতে গেলে বলা যায়, ব্যাকপ্যাকিং একটা লাইফ-স্টাইল, এটা কেবলমাত্র একটা ব্যাগ ঘাড়ে করে ঘুরে বেড়ানো নয়।

যারা ব্যাকপ্যাকিং করেন নিয়মিত, তারা মানুষ হিসেবে হয়ে থাকেন অনেকখানি সহনশীল, মানসিকভাবে উদার, যে কোন পরিস্থিতিতে মানিয়ে নেবার মত ইচ্ছা ও ভিন্ন কিছু অভিজ্ঞতা নেবার বিষয়ে সবসময় উন্মুখ।

 

খুব সামান্য কিছু জিনিস নিয়ে ব্যাকপ্যাকার্সরা বেড়িয়ে পড়েন নতুন মানুষ, নতুন স্থান, নতুন দেশ, নতুন সংস্কৃতি দেখে বেড়াবার জন্য। তারা আরামদায়ক বিছানা আশা করেন না, যেখানে রাত হয়, একটু নিরাপদ জায়গা খুঁজে নিয়ে সেখানেই তারা রাত্রিযাপনের জন্য ব্যবস্থা নেন।

বেশিরভাগ সময় তাদের কোন বিশেষ পরিকল্পনাও থাকে না, কোথাও মন বসে গেলে সেখানে কিছুদিন থেকে যান, নয়ত একটু করে বিরতি নিয়ে চলে ফিরে বেড়ান এখানে সেখানে, যেদিকে তার দুচোখ যায়।

তারা পাঁচ বিলিয়ন স্টার হোটেল তথা খোলা আকাশের নিচে ক্যাম্প করেন, তারা ভোরের সূর্যটাকে উঠতে দেখেন, তারা এমন সব জায়গায় যান, যেখানে যাবার কথা সাধারণ মানুষ ভাবতেও পারেন না, এমন সব জিনিস দেখেন যেগুলো দেখার ভাগ্য পৃথিবীর খুব কম মানুষেরই হয়।

এমন কিছু বিখ্যাত ব্যাকপ্যাকার্স এর কথাও জানা গেছে, যারা বিশ্ব ঘুরেছেন পকেট থেকে একটা টাকাও খরচ না করে।

শুনতে অনেক আকর্ষণীয় মনে হলেও কাজটা অত্যন্ত কঠিন। অনেক সময় না খেয়ে দিন বা রাত পার করতে হয়েছে তাদের, অনেক সময় থাকতে হয়েছে খোলা আকাশের নিচে, অনেক সময় স্থানীয় খারাপ মানুষ সুযোগ নিতে চেয়েছে তাদের অসহায়তায়।

 

তারপরেও তারা নিয়মিতভাবে এগিয়ে গেছেন, একজন খারাপ মানুষ এর দ্বারা ক্ষতিগ্রস্ত হলে দশটা ভাল মানুষের সাথে বন্ধুত্ব করেছেন, তাদের সহায়তা পেয়েছেন বিভিন্ন বিষয়ে।

বর্তমান সময়ে তাই অনেকের কাছে ব্যাক-প্যাকিং শব্দটা রোমান্টিক একটা বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে।

photonews24.com

সামাজিক মাধ্যমে শো-অফের বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। অনেকে বছরে একবার কাঁধে ব্যাগ নিয়ে ঘুরে সেই ছবি সারা বছর সবাইকে দেখিয়ে বেড়াচ্ছে।

 

আসলে ব্যাকপ্যাকার্স ভবঘুরেদেরই আর এক নাম। যাদের ঘরে মন টেকে না, নিত্য নতুন হাওয়ায় শ্বাস না নিলে দম বন্ধ হয়ে আসে, নতুন নতুন মানুষদের সাথে মিশতে না পারলে মনটাই খারাপ হয়ে যায়, সত্যিকার ব্যাকপ্যাকার্স আসলে তারাই।

তাহলে কি আপনার আমার মত মানুষদের কোন আশাই নেই?

অবশ্যই আছে। সবার পক্ষে ভবঘুরে হয়ে যাওয়া সম্ভব হয় না। অনেকেরই অনেক রকম দায়িত্ব থাকে যেগুলো অস্বীকার করার কোন উপায় থাকে না। ব্যাকপ্যাকার্স হবার জন্য দরকার এডভেঞ্চার-প্রবণ একটা মন আর অল্প সময়ের নোটিশে এডভেঞ্চারে বেড়িয়ে যাবার মানসিকতা।

 

সত্যিকার ব্যাকপ্যাকার্স কখনও শো-অফ করার জন্য কিছু করেন না, তিনি করেন কারণ তিনি করতে ভালবাসেন।

 

-এ


-->


সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক: আবু সুফিয়ান
চেয়ারম্যান: মুসলিমা সুফিয়ান

কল: 01723-980255,01919-972103
নিউজ রুম :01710-972103
ইমেল: Photonews24@yahoo.com

১২মধ্য বেগুনবাড়ি,তেজগাঁও শিল্প এলাকা,ঢাকা -১২০৮
ইমেল: shufian707@gmail.com